অক্টোবর ২৫, ২০২১ ০৫:৪২ অপরাহ্ন



অক্টোবর / ২৫ / ২০২১


সিলেটের সকাল রিপোর্ট

আপডেটের : অক্টোবর / ২৫ / ২০২১

তিন গুণীকে বাংলাদেশ মণিপুরী সাহিত্য সংসদের সংবর্ধনা


বাংলাদেশ মণিপুরী সাহিত্য সংসদ (বামসাস) শিল্প-সংস্কৃতি, সমাজ উন্নয়ন, ক্রীড়া ও শিক্ষা খাতে যারা বিশেষ অবদান রেখেছেন মণিপুরী সমাজের এরকম বিশিষ্ট গুণীজনদের ১৯৭৯ সাল থেকে সম্মাননা জ্ঞাপন করে এসেছে। তারই ধারাবাহিকতায় এবছর সংগীতে হাওরোংবম নীলমণি সিংহ, সমাজসেবায় মোইরাংথেম খির সিংহ এবং মৃদঙ্গবাদনে ক্ষেত্রিময়ুম নীলধ্বজ সিংহ শামুঙৌকে সম্মাননা জানানো হয়েছে শুক্রবার। 

সমাজের গুণীজনদের সম্মাননা জ্ঞাপন অত্যন্ত মহতী এক উদ্যোগ। এর মাধ্যমে সমাজে আরো গুণীজনের জন্মের পথ প্রশস্ত করা হয়, সমাজের উন্নয়ন ও অগ্রগতি আরো ত্বরান্বিত হয়। বাংলাদেশ মণিপুরী সাহিত্য সংসদ গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে অত্যন্ত প্রশংসনীয় একটি কাজ করেছে। বাংলাদেশ মণিপুরী সাহিত্য সংসদ আয়োজিত গুণীজন সংবর্ধনা ২০২১ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. রমা বিজয় সরকার এ কথাগুলো বলেন।  ২৪ সেপ্টেম্বর  সিলেট শহরের মণিপুরী রাজবাড়ি মন্ডপে বাংলাদেশ মণিপুরী সাহিত্য সংসদের সভাপতি এ কে শেরামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গুণীজন সংবর্ধনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বেতার, সিলেট কেন্দ্রের আঞ্চলিক পরিচালক আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তারিক এবং সিলেট জেলা শিল্পকলা একাডেমির জেলা সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা অসিত বরণ দাশ গুপ্ত। নামব্রম শংকর ও কেএইচ সমেন্দ্র সিংহের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের সূচনালগ্নে স্বাগত বক্তব্য দেন বামসাসের সাধারণ সম্পাদক নামব্রম শংকর। অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন বামসাসের সহসভাপতি প্রশান্ত কুমার সিংহ, বামসাসের সাবেক সভাপতি শেরাম নিরঞ্জন, ধরনী কুমার সিংহ প্রমুখ । 

অনুষ্ঠানের শুরুতে সংবর্ধিত তিন গুণীজন নীলমণি সিংহ, খির সিংহ এবং শামুঙৌ সিংহকে ফুলের তোড়া, উত্তরীয়, ক্রেস্ট ও শাল দিয়ে সম্মাননা জানান অতিথিবৃন্দ। এর আগে তিন গুণীজনের সংক্ষিপ্ত জীবনী পাঠ করেন পি. মিনতি দেবী, কৈনাহন দেবী ও রওশন আরা বাঁশি খূৎহৈবম। আলোচনা পর্বের পর ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সেখানে সংগীত পরিবেশনায় ছিলেন মিনতি সিনহা, পি. মিনতি দেবী, মিলনী দেবী, অলকা দেবী মামণি, অপর্না রানী সিনহা, মাইবম আইরিন লৈনা ও সুষমা সিনহা। তবলা সঙ্গতে ছিলেন পি. বিধান সিংহ।  নৃত্য পরিবেশন করেন শান্তনা দেবীর পরিচালনায় একাডেমি ফর মণিপুরী কালচার এন্ড আর্টস (এমকা)র শিল্পীবৃন্দ।