জুলাই ২৫, ২০২১ ০৯:৪৮ পূর্বাহ্ন



জুলাই / ২৫ / ২০২১


শাবি প্রতিনিধি

আপডেটের : জুলাই / ২৫ / ২০২১

টিকার আওতায় আসছেন শাবিপ্রবির ১০৯০ শিক্ষার্থী



 করোনাভাইরাসের টিকার আওতায় আসছেন সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) পাঁচটি হলের এক হাজার ৯০ জন আবাসিক শিক্ষার্থী। যা মোট আবাসিক শিক্ষার্থীদের প্রায় ৪৮ শতাংশ। 


সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এক হাজার ৯০ জন শিক্ষার্থীর প্রাথমিক নিবন্ধনের তালিকা প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ। 


টিকা পেতে তালিকাভুক্ত শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন করতে হবে। এছাড়া সেসব আবাসিক শিক্ষার্থীদের জাতীয় পরিচয় পত্র আছে কিন্তু পূর্বে তথ্য জমা দেয়নি, তারা চাইলে তথ্য জমা দিয়ে টিকার জন্য নিবন্ধন করতে পারবে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ। 


গত ২৫ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) এক জরুরী বিজ্ঞপ্তিতে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল সংশ্লিষ্ট শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জাতীয় পরিচয়পত্রের অনুলিপিসহ (ফটোকপি) প্রয়োজনীয় তথ্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে পাঠাতে বলা হয়। এর প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে হল প্রশাসনের মাধ্যমে জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য চাওয়া হয়েছিল। এতে সাড়া দিয়ে যারা তথ্য জমা দিয়েছিল যাচাই-বাছাই শেষে তাদের প্রাথমিক নিবন্ধনের তালিকা প্রকাশ করা  হয়।



সার্বিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, 'সরকার অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিকা দিবে। যেসব আবাসিক শিক্ষার্থীর তালিকা ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে তারা সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধনের মাধ্যমে টিকা পাবেন। আর যারা আগে জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য জমা দেয়নি, এরপরে জমা দিলেও তাদের প্রাথমিক নিবন্ধনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এছাড়া পর্যায়ক্রমে সব শিক্ষার্থীকে টিকার আওতায় নিয়ে আসা হবে।'

শিক্ষাঙ্গন