শিরোনাম
কাজী জালাল উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মাওলানা এনামুল হকের দাফন সম্পন্ন সংসদীয় কমিটিতে আলোচনায় সওজ সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ‌'সাবিনার মতো আর কোনো নারীর জীবনে এমন ঘটনা ঘটুক-আমরা তা চাই না' ছাতকের জহিরপুরে মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষে প্রাণ গেল একজনের শাবির সাথে সোনালী ব্যাংক এর ১০০ কোটি টাকার সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত দক্ষিণ সুরমায় সালিশ ব্যক্তিত্ব খুনের ঘটনায় মহিলা গ্রেফতার এবারও শাহপরান (রহ.) মাজারের ওরসও হচ্ছে না দুবাই এক্সপো শুরু ১ অক্টোবর : ভিজিটরদের অনন্য অভিজ্ঞতা দিতে প্রস্তুত এমিরেটস প্যাভিলিয়ন ‘ফজরের নামাজ পড়ে তারা ট্রাকের সামনে গল্প করছিলেন’ দক্ষিণ সুরমায় সালিশ ব্যক্তিত্বের লাশ উদ্ধার
English

সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১ ০৩:১৫ পূর্বাহ্ন



সেপ্টেম্বর / ২৭ / ২০২১


শাবিপ্রবি প্রতিনিধি

আপডেটের : সেপ্টেম্বর / ২৭ / ২০২১

শেখ রাসেলকে হত্যার মাধ্যমে না ফোটা ফুল ঝরে ফেলা হয়েছে

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। এই হত্যাকান্ডে বঙ্গবন্ধু পুত্র শেখ রাসেলকে হত্যার মাধ্যমে না ফোটা ফুল ঝরে ফেলা হয়েছে মন্তব্য করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ রাসেল পরিষদ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের স্মরণসভায় উপস্থিত বক্তারা। 

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রোববার সন্ধ্যায় ভার্চুয়াল স্মরণসভা আয়োজন করে শেখ রাসেল পরিষদ, শাবিপ্রবি। 

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,  বঙ্গবন্ধু পুত্র শেখ রাসেল ছিলেন একজন নিষ্পাপ শিশু। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়নে মন মানসিকতায় আমাদের এমন নিষ্পাপ চিন্তার অধিকারী হতে হবে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর অবদান, শেখ রাসেলের অনুভূতি ও শেখ হাসিনার কর্মকান্ডগুলোকে ছড়িয়ে দিতে শেখ রাসেল পরিষদের সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। আমরা যদি বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারন করতে পারি তবে শেখ রাসেল হয়ে আমরাই একদিন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন করতে পারবো। 

স্মরণসভায় বক্তব্য প্রদান করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের  ফিজিক্যাল সাইন্স অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড.মো.রাশেদ তালুকদার, সমাজকর্ম বিভাগের সিনিয়র অধ্যাপক আমিনা পারভিন, পরিচালক ছাত্রকল্যাণ উপদেশ ও নির্দেশনা-অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমদ, সমাজকর্ম এলামনাই এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম শামীম, শাবিপ্রবির সহকারী প্রক্টর ও সহযোগী অধ্যাপক ড.আলমগীর কবির, হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার সহকারী কমিশনার উত্তম কুমার দাশ, পলিটক্যাল স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাকিল ভূইয়া, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপব আশিষ কুমার বণিক, শেখ রাসেল পরিষদ-শাবিপ্রবির সাধারণ সম্পাদক মো: কয়েস মিয়া প্রমুখ। 

স্মরণ সভায় সঞ্চালনার দায়িত্ব পালন করেন শেখ রাসেল পরিষদ-শাবিপ্রবির সভাপতি খালেদ সাইফুল্লাহ ইলিয়াস।

শিক্ষাঙ্গন