জুলাই ২৫, ২০২১ ০৮:১২ পূর্বাহ্ন



জুলাই / ২৫ / ২০২১


কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি

আপডেটের : জুলাই / ২৫ / ২০২১

কোম্পানীগঞ্জে ছিনতাই মামলার আসামি গ্রেফতার


সড়কে গাড়ি থামিয়ে অস্ত্রের মুখে যাত্রীদের মানিব্যাগ ও ফোনসেট ছিনতাইয়ের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ফরিদ মিয়া (২৮) নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ।

গত বুধবার বিকেলে সিলেট নগরের বন্দরবাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি সিলেট জালালাবাদ থানাধীন পাইকরাজ গ্রামের মছদ্দর মিয়ার ছেলে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুকোমল ভট্টাচার্য্য বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ছিনতাই মামলার আসামি ফরিদ মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। 

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল বলেন, ফরিদ ছিনতাইকারী চক্রের একজন সক্রিয় সদস্য। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র ও ছিনতাইসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এর আগে, গত ৩১ মে রাত পৌনে ১২টার দিকে সিলেট-কোম্পানীগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মহাসড়কের খাগাইল এলাকায় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ছিনতাইকারীরা সড়কে রশি টেনে চলন্ত সিএনজি অটোরিক্সা থামায়। পরে অস্ত্রের মুখে যাত্রীদের জিম্মি করে সর্বস্ব লুট করে।

সংঘবদ্ধ এ ছিনতাইকারী দলের ছুরির আঘাতে মুসা ইব্রাহীম উজ্জ্বল নামের এক যাত্রী আহত হন। কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পুরান মেঘারগাঁও গ্রামে তাঁর বাড়ি। অটোরিক্সার অপর চার যাত্রী ছিলেন- পুরান বালুচর গ্রামের আরিফুল হক, ঢালারপাড় গ্রামের  মালেক আহমদ, রাজনগর গ্রামের রবিউল আউয়াল, হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার রাজেন্দ্রপুর গ্রাামের আনোয়ার হোসেন।

মুসা ইব্রাহিম উজ্জ্বল জানান, কুমিল্লায় সেনাবাহিনীর একটি নিয়োগ পরীক্ষা শেষে তারা পাঁচজন ওইদিন রাতে সিলেটে ফিরেন। পরে আম্বরখানা থেকে সিএনজি অটেরিক্সায় করে কোম্পানীগঞ্জ ফিরছিলেন। অটেরিক্সাটি ছালিয়া পেট্রোল পাম্পে থামে। চালক তখন জরুরি প্রয়োজন সারবে বলে গাড়ি থেকে নামেন। দশ মিনিট পর সিএনজি অটেরিক্সা স্টার্ট করে খাগাইল এলাকায় পৌঁছুলে চালক হঠাৎ হার্ড ব্রেক করেন। যাত্রীরা তখন ভয় পেয়ে যান। সামনে তাকিয়ে দেখেন রাস্তায় রশি টানানো। ৬ সদস্যের ছিনতাইকারী তাদের ঘিরে ফেলে। ধারালো ছুরি ও রামদা ধরে যাত্রীদের মানিব্যাগ, মোবাইল সেট ও সাথে থাকা মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। 

ঘটনাটি তারা কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশকে অবগত করেন। তাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ সিএনজি অটোরিক্সা চালককে আটক করলেও পরে ছেড়ে দেয়।

এ ঘটনায় গত ৩ জুন অজ্ঞাতনামা তিন-চারজনকে আসামী করে থানায় মামলা করেন মুসা ইব্রাহিম উজ্জ্বল। বুধবার এ মামলায় ফরিদ গ্রেফতার হয়।

আইন-আদালত