জানুয়ারি ২৪, ২০২২ ০৩:০১ পূর্বাহ্ন



জানুয়ারী / ২৪ / ২০২২


সিলেটের সকাল ডেস্ক

আপডেটের : জানুয়ারী / ২৪ / ২০২২

বর্ণিল আয়োজনে নবাগত শিক্ষার্থীদের বরণ করলো আরটিএমআই-এইচআরডিসি

বর্ণিল আয়োজনে নবাগত শিক্ষার্থীদের বরণ করলো আরটিএম ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপম্যান্ট (আরটিএমআই-এইচআরডিসি)। এ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানের পূর্ব শাহী ঈদগাহ টিবি গেইটস্থ ক্যাম্পাস আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার ড. মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাস্থ্যসেবাকে প্রান্তিক পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছিলেন। সেই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে সারাদেশে ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপিত হয়েছে।  এসব ক্লিনিক থেকে মা-শিশুরা চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারাদেশে উন্নয়নের যে অভিযাত্রা শুরু হয়েছে, তা কেউ দমিয়ে রাখতে পারবে না।

আরটিএমআই-এইচআরডিসি’র চেয়ারম্যান, অর্থনীতিবিদ  বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. আহমদ আল কবিরের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিভাগীয় কমিশনার নবাগত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন,  এ  প্রতিষ্ঠান থেকে উত্তীর্ণ কেউ বেকার নেই। আগামীতে এখান থেকে যারা কোর্স সম্পন্ন করবে, তারাও কেউ বেকার থাকবে না। শিক্ষার্থীরা নিজেদের মেধা-মননশীলতাকে কাজে লাগিয়ে সমাজ উন্নয়নে অবদান রাখবে। আরটিএমআই-এইচআরডিসি’র প্রশংসা করে তিনি বলেন, এ প্রতিষ্ঠা কারিগরি শিক্ষার বিকাশে অবদান রাখছে। তিনি প্রতিষ্ঠানটির উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন-আরটিএমআই-এইচআরডিসি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর ড. আহমদ আল ওয়ালী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন-সিলেট জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও সিলেট জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, আরটিএমআই-এইচআরডিসি’র ডিরেক্টর রোকসানা হক, আরটিএম আল কবির টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটির ডীন ড. তোফায়েল আহমদ, সীমান্তিক কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রউফ তাপাদার, অধ্যক্ষ মাজেদ আহমদ চঞ্চল, সীমান্তিকের উপ-পরিচালক পারভেজ আলম ও হুমায়ুন কবির প্রমুখ।
প্রতিষ্ঠানের পরিচিত তুলে ধরেন-আরটিএমআই-এইচআরডিসি’র ডাইরেক্টর ড. এস এম ফরিদুল ইসলাম লতিফি। অনুজ সরকার শুভ ও ফারাবি ফাহিমের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন মাহদী হাসান তাহমিদ। গীতা পাঠ করেন গোপাল দাশ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন-নেজাম উদ্দিন, হোসেন আহমদ বাবু, নয়ন রঞ্জন দাশ ও নুর আমিন প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে বীরমুক্তিযোদ্ধা ড. আহমদ আল কবির বলেন, মানবসম্পদ উন্নয়নে কারিগরি শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। তিনি বলেন, সিলেট অঞ্চলে কারিগরি শিক্ষার বিকাশের লক্ষ্যে আরটিএমআই-এইচআরডিসি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এ প্রতিষ্ঠান থেকে যারা পাস করেছে-তাদের কেউই বেকার নেই। উত্তীর্ণদের শতকরা ৫০ ভাগ আমাদের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করছে। প্রসঙ্গক্রমে তিনি আরো বলেন, আমরা শিগগিরই ভাষা শিক্ষা কোর্স চালু করবো। যাতে এখানকার শিক্ষার্থীরা ইংরেজি, জাপানী ও ফ্রেঞ্চ-ভাষায় দক্ষতা অর্জন করে দেশে-বিদেশে কর্মক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করতে পারে।
অনুষ্ঠানে ম্যাটস, আইএইচটি (ফার্মেসী, ল্যাব প্যাথলজি, ফিজিওথেরাপী), ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি, বেসিক বিএসসি ইন নার্সিং, পোস্ট বেসিক বিএসসি ইন নার্সিং ও কমিউনিটি প্যারামেডিকসে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের বরণ করা হয়। পরে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 

শিক্ষাঙ্গন