শিরোনাম
কাজী জালাল উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মাওলানা এনামুল হকের দাফন সম্পন্ন সংসদীয় কমিটিতে আলোচনায় সওজ সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ‌'সাবিনার মতো আর কোনো নারীর জীবনে এমন ঘটনা ঘটুক-আমরা তা চাই না' ছাতকের জহিরপুরে মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষে প্রাণ গেল একজনের শাবির সাথে সোনালী ব্যাংক এর ১০০ কোটি টাকার সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত দক্ষিণ সুরমায় সালিশ ব্যক্তিত্ব খুনের ঘটনায় মহিলা গ্রেফতার এবারও শাহপরান (রহ.) মাজারের ওরসও হচ্ছে না দুবাই এক্সপো শুরু ১ অক্টোবর : ভিজিটরদের অনন্য অভিজ্ঞতা দিতে প্রস্তুত এমিরেটস প্যাভিলিয়ন ‘ফজরের নামাজ পড়ে তারা ট্রাকের সামনে গল্প করছিলেন’ দক্ষিণ সুরমায় সালিশ ব্যক্তিত্বের লাশ উদ্ধার
English

সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১ ০৪:১৪ পূর্বাহ্ন



সেপ্টেম্বর / ২৭ / ২০২১


সিলেটের সকাল রিপোর্ট

আপডেটের : সেপ্টেম্বর / ২৭ / ২০২১

বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্তের অঙ্গীকার করতে হবে: ড. আহমদ আল কবির


বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সীমান্তিকের প্রতিষ্ঠাতা ও সীমান্তিক আল কবির টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান ড. আহমদ আল কবির বলেছেন, জাতীয় শোকদিবসে  আমাদের সকলকে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার অঙ্গীকার করতে হবে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পিতার শেখানো পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের মৌলিক সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চালাচ্ছেন। তিনি বলন, দেশেরর উন্নয়নে যার যার অবস্থান থেকে কাজ করে যেতে হেবে। দেশের বিপুল জনশক্তিকে দক্ষ জনসম্পদে রুপান্তর করতে হবে। 

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সীমান্তিক শিক্ষা পরিবার আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ড. আহমদ আল কবির বলেন, মানব সভ্যতার ইতিহাসে ঘৃণ্য নৃশংসতম বেদনাবিধূর শোকের দিন ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট। এই দিনে মানবতার শত্রু,প্রতিক্রিয়াশীল ঘাতকচক্র বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে। তিনি বলেন, দেশ স্বাধীন হবার পর জাতির পিতা দ্বিতীয় বিপ্লবের ঘোষণা দিয়েছেন।  আর এ বিপ্লবের সফল বাস্তবায়ন করে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর নেতৃত্বে দেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বৃদ্ধির পাশাপাশি রেমিটেন্সের প্রবাহ বাড়তির দিকে। কৃষিক্ষেত্রে সাধিত হয়েছে বিপ্লব। দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। 

প্রসঙ্গক্রমে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু মানবসম্পদের উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা, স্বাস্থ্য সকলক্ষেত্রে উন্নয়নের যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, সেই স্বপ্ন পূরণে কাজ করে চলেছে সীমান্তিক। সীমান্তিক আল কবির টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠার প্রেক্ষাপট বর্ণনা করে তিনি বলেন, আমরা সত্যিকার অর্থেই ব্যতিক্রমী শিক্ষা পদ্ধতি চালু করতে চাই। দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়নই আমাদের লক্ষ্য। স্বাস্থ্যক্ষেত্রেও আরটিএম অনন্য অবদান রেখে চলেছে। তিনি কোভিডের এই সময়ে বিপদগ্রস্ত লোকজনকে সহযোগিতা করতে সবার প্রতি আহ্বান জানান। 


সীমান্তিক এর পরিচালক ও অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুর রউফ তাপাদারের উপস্থাপনা এবং সীমান্তিকের চেয়াম্যান অধ্যক্ষ মাজেদ আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় মুখ্য-আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন “মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ গবেষণা ইনস্টিটিউটের” পরিচালক বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ প্রফেসর ডঃ মোঃ মনিরুজ্জামান। 

প্রফেসর মনিরুজ্জামান বলেন, ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণে স্বাধীনতা সংগ্রামের অগ্নিশপথে ঐক্যবদ্ধ হয় বাঙালি জাতি। তিনি বাংলার মাটি ও মানুষের পরম আত্মীয়। ইতিহাসে বিস্ময়কর নেতৃত্বের কালজয়ী স্রষ্টা। উন্নত-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন সারথি ছিলেন।  বঙ্গবন্ধুর আদর্শের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে সকলের কাছে বঙ্গবন্ধুর অবিনাশী চেতনা ও আদর্শ ছড়িয়ে দিতে হবে।


অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন আরটিএম আল-কবির টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি ভিসি ডঃ মোঃ নাজমুল হক, আর টি এম এর নির্বাহী পরিচালক সাবেক যুগ্ম সচিব সৈয়দ জগলুল পাশা, আরটিএম আল-কবির টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটির কমিটি মেম্বার ড. আহমদ আল-ওয়ালি, সিলেট জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও সীমান্তিকের মহাসচিব মোঃ শামীম আহমদ, আর টি এম আল-কবির টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি ডিন প্রফেসর ডঃ তোফায়েল আহমদ, সীমান্তিকের নির্বাহী পরিচালক কাজী মোকছেদুর রহমান, বাংলাদেশ বেতারের বিশেষ প্রতিনিধি সৈয়দ সাইমুম আঞ্জুমান ইভান, বাংলাদেশ টেলিভিশন ঢাকার সিনিয়র কর্মকর্তা ও আবৃত্তিকার এ কে এম শহীদুল্লাহ কায়সার। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সীমান্তিকের উপ-নির্বাহী পরিচালক পারভেজ আলম ও কাজী হুমায়ুন কবির। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মধ্য বক্তব্য রাখেন একাদশ শ্রেণির ছাত্রী নাজির আক্তার, গান পরিবেশন করে মিডওয়াইফের প্রশিক্ষনার্থী প্রীতি রানী দাস, বিএড প্রশিক্ষণার্থী শর্মিলা দেবী,সীমান্তিক আইডিয়াল স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী ইয়াসমিন জান্নাত। সহকারি শিক্ষক আলমগীর আখন্দের পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত ও স্বর্ণা পুরকায়স্থের গীতা পাঠের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে পঁচাত্তরের শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন সুনামগঞ্জের জেলা শিক্ষা অফিসার  জাহাঙ্গীর আলম। 

সিলেট