English

অক্টোবর ২৫, ২০২১ ০৩:২৯ অপরাহ্ন



অক্টোবর / ২৫ / ২০২১


সিলেটের সকাল রিপোর্ট:

আপডেটের : অক্টোবর / ২৫ / ২০২১

বাংলাদেশে ত্রিশোর্ধ ৫০ ভাগ মানুষ হৃদরোগের ঝুঁকিতে


বর্তমানে পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়াবহ রোগ হার্ট বøকেজের কারণে হার্ট-অ্যাটাকে প্রতিবছর বিশ্বের প্রায় তিন কোটি মানুষ মারা যায়, যা প্রতি সেকেন্ডে একজন। বাংলাদেশে প্রতিবছর প্রায় তিন লক্ষ লোক মারা যায়, যা প্রতি দুই মিনিটে একজন। তাছাড়া বাংলাদেশে ত্রিশোর্ধ ৫০ ভাগ মানুষ হৃদরোগের ঝুঁকির মধ্যে আছেন। হার্ট অ্যাটাকের অধিকাংশ রোগী হাসপাতালে নেয়ার আগেই মারা যান। 

রোববার দুপুরে সাওল হার্ট সেন্টারের উদ্যোগে সিলেট প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত ‘বিনা রিং, বিনা অপারেশনে হৃদরোগ প্রতিকার ও প্রতিরোধ শীর্ষক’ সেমিনারে এসব তথ্য উপস্থাপন করা হয়। প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে এ সেমিনারে ক্লাবের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

সেমিনারে সাওল হার্ট সেন্টারের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. ফারহান আহমদ ইমন সূচনা বক্তব্য দেন। পরে ভারতের খ্যাতনামা হৃদরোগ ও লাইফস্টাইল বিশেষজ্ঞ ডা. বিমল ছাজেড় এর একটি ভিডিওচিত্র প্রদর্শন করা হয়। এতে তিনি ভারত ও বাংলাদেশে সাওল হার্ট সেন্টারের কার্যক্রমের পাশাপাশি বিভিন্ন চিকিৎসা বিশেষ করে নেচারাল বাইপাস (ইইসিপি), কার্ডিয়াক ডিটক্স, ডায়েট (খাদ্য-পরিকল্পনা), ইয়োগ-মেডিসিনসহ (যোগাভ্যাস ধ্যান) এ বিষয়ে বিস্তারিত বক্তব্য তুলে ধরেন। পরে ডা. ফারহান উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। 

সেমিনারে আরও জানানো হয়, হার্ট বøকেজের চিকিৎসা এখন সার্জিক্যাল ও নন-সার্জিক্যাল দুই পদ্ধতিতে হয়ে থাকে। হার্টের বাইপাস অপারেশন ও রিং বসানো সার্জিক্যাল পদ্ধতির চিকিৎসা- যা ঝুঁকিপূর্ণ এবং এর সুফল প্রশ্নবিদ্ধ। হার্টের বøকেজ চিকিৎসায় নন-সার্জিক্যাল এনহাসড এক্সটার্নাল কাউন্টার পালসেশন (ইইসিপি) প্রযুক্তি এই মুহূর্তে সেরা এবং সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য। সাওল চিকিৎসাপদ্ধতি নন-সার্জিক্যাল। আধুনিক মেশিন-মেডিসিন, আদর্শ জীবন-যাপন ও পরিকল্পিত খাদ্যাভাস সমন্বিত সাওল চিকিৎসাপদ্ধতি আমেরিকার প্রখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ডিন অরনিশ ও ভারতের খ্যাতনামা হৃদরোগ ও লাইফস্টাইল বিশেষজ্ঞ ডা. বিমল ছাজেড় (এমডি) কর্তৃক গবেষণা দ্বারা সুপ্রতিষ্ঠিত। গত কয়েক বছর ভারত, নেপাল, বাংলাদেশ, আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশে লক্ষাধিক রোগী হার্টে বাইপাস অপারেশন না করে এবং রিং না বসিয়ে সাওল চিকিৎসায় প্রায় শতভাগ সুস্থতা লাভ করেছেন। 

বাংলাদেশে সাওল হার্ট সেন্টার প্রতিষ্ঠার পর থেকেই বাংলাদেশের বিভিন্ন খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠান ও সংস্থায় সেমিনার-সমাবেশ আয়োজন করে স্বাস্থ্য বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য কাজ করে যাচ্ছে। এসব সমাবেশে হৃদরোগ প্রতিকার ও প্রতিরোধ, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, মানসিক চাপের মতন প্রাণঘাতী রোগ থেকে নিরাময় লাভের বিস্তারিত তথ্য দেয়া হয়।  

সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ মো. রেনু, সহ-সভাপতি এম এ হান্নান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ, সাবেক সহ-সভাপতি আতাউর রহমান আতা, ক্লাবের সিনিয়র সদস্য আব্দুল মালিক জাকা, সাবেক কোষাধ্যক্ষ খালেদ আহমদ ও মো. আফতাব উদ্দিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক আহমাদ সেলিম, পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক কবির আহমদ, ক্লাব সদস্য চৌধুরী দেলওয়ার হোসেন জিলন, মো. মুহিবুর রহমান, মো. আমিরুল ইসলাম চৌধুরী এহিয়া, ফারুক আহমদ, এম এ মতিন, মো. দুলাল হোসেন, খালেদ আহমদ, ইদ্রিছ আলী, আবুল কালাম কাওছার, সাকিব আহমদ মিঠু প্রমুখ।    

মিডিয়া