জানুয়ারি ২৪, ২০২২ ০৩:১১ পূর্বাহ্ন



জানুয়ারী / ২৪ / ২০২২


অনলাইন ডেস্ক

আপডেটের : জানুয়ারী / ২৪ / ২০২২

২বছর পর মাঠে নেমেই খাজার সেঞ্চুরি

দুই বছর পর ফের অস্ট্রেলিয়ার জার্সি চাপিয়ে টেস্ট খেলতে নামার সুযোগ পেয়েছিলেন উসমান খোয়াজা। আর সেই সুযোগ বিফলে যেতে দিলেন না। অ্যাসেজ সিরিজের চতুর্থ টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করে নিজেকে প্রমাণ করে দিলেন তিনি। ৫ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ২৬০ বলে ১৩৭ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস উপহার দিলেন খোয়াজা। ইংলিশ বোলারদের মাঠে খোয়াজার কার্যত শাসন করে গেলেন। আর তার এমন পারফরম্যান্সে খুশির ফোয়ারায় মাততে দেখা গেল তার স্ত্রী ও মেয়েকেও। 

২০১১ সালে সিডনিতে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল খোয়াজার। এরপর দল থেকে মাঝে মধ্যেই তাকে বাদ পড়তে হয়েছে। ঘটনাচক্রে এই সিডনিতেই তিনি ২০১৮ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অপরাজিত ১৭১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। এই তথ্যের উল্লেখ করে আইসিসির তরফ থেকেও টুইট করা হয়েছে। সেই টুইটের ক্যাপশনে লেখা- “জানুয়ারি ৬, ২০১৮ বনাম ইংল্যান্ড: ১৭১ রান, জানুয়ারি ৬, ২০২২ বনাম ইংল্যান্ড: ১৩৭ রান। উসমান খোয়াজা সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ব্যাট করতে ভালোবাসেন।”

সেঞ্চুরি করার স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ্বাস ধরে রাখতে পারেননি খোয়াজা। মাঠের মধ্যেই আনন্দে তাকে দৌঁড়াতে দেখা যায়। তার স্ত্রীও খোয়াজার এই ইনিংস দেখে ভীষণ খুশি হয়েছেন। এক সাক্ষাৎকারে খোয়াজার স্ত্রী রাচেল বলেন, এটা বেশ অবিশ্বাস্য। আমি এটা প্রত্যাশা করিনি। আমার প্রত্যাশাকে ও ছাপিয়ে গিয়েছে। আমি ভাবিনি ও এমন একটা ইনিংস খেলবে। যেভাবে ও সেঞ্চুরি করল সেটা অসাধারণ

খেলাধুলা