বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনের সিলেট জেলা কমিটি গঠন

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥ বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনের সিলেট জেলার নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। ‘রুখে দাও বৈষম্য, আদায় হোক অধিকার’ এই প্রতিপাদ্য সামনে রেখে গত শনিবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) সিলেট জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মচারীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

৫১ সদস্যের এ কমিটিতে মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেনকে সভাপতি, নিত্যানন্দ গোপকে কার্যকরি সভাপতি, মো. খবির উদ্দিন আকনকে সাধারণ সম্পাদক এবং মো. দেলোয়ার হোসেনকে অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। যা ফেডারেশনের গঠনতন্ত্রের অনুচ্ছেদ ১০ এর গ এবং ঙ মোতাবেক ৩ (তিন) বছর মেয়াদের জন্য কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের অনুমোদন প্রাপ্তি সাপেক্ষে কার্যকর হবে।

আলোচনা সভায় ২০১৫ সালের সরকারি কর্মচারীদের জন্য ঘোষিত পে-স্কেলে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিশাল বৈষম্যের অবসানের কথা তুলে ধরে বক্তব্য দেন নবগঠিত কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন।

তিনি বলেন, ‘বৈষম্যহীন সোনার বাংলা গড়ার আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে জীবনের অধিকাংশ সময় পরিবার পরিজন ছাড়া জেলখানায় কাটাতে হয়েছে। ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের বৈষম্যের বিরুদ্ধে কথা বলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রত¦ও হারিয়েছেন তিনি।’

‘কিন্তু কর্মচারীদের টাইমস্কেল, সিলেকশন গ্রেড বন্ধ করে চাকরীর ১০ ও ১৬ বছর পূর্তিতে উচ্চতর গ্রেড পাওয়ার কথা থাকলে বিভিন্ন অযুহাতে তা কর্মচারীদের দেয়া হচ্ছে না। বিভিন্ন দপ্তরে কর্মরত সরকারী কর্মচারীরা ৩০/৩৫ বছর চাকুরি করে প্রায় ৭৫ থেকে ৮০ ভাগ কর্মচারী পদোন্নতি ছাড়াই অবসরে গমন করেন।’

তাছাড়া ০১ থেকে ১০ এবং ১১-২০ গ্রেডের সরকারি কর্মচারীদের বেতনভানাসহ সকল সুযোগ সুবিধায় আকাশ-পাতাল ফারাকের কারণে কর্মচারীদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে। গঠিত কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন এই বৈষম্য সহনীয় মাত্রায় আনার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

শেয়ার করুন