‘‌‌বিমানের লন্ডন-সিলেটে ফ্লাইট বন্ধের খবর সঠিক নয়’

সিলেটের সকাল রিপোর্ট:স্বাস্থ্য বিভাগের সহযোগিতায় সিলেটে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন সুবিধা নিশ্চিত হলে বিমানের লন্ডন থেকে সিলেটগামী যাত্রীরা সরাসরি সিলেটে পৌঁছাবেন। পাশাপাশি যুক্তরাজ্যের ডিপার্টমেন্ট অব ট্রান্সপোর্ট-(ডিএফটি) তাদের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করলে বিমান সিলেট-লন্ডন সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করবে।
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের উপ-মহাব্যবস্থাপক তাহেরা খন্দকার বৃহস্পতিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।
গত শুক্রবার বিমান বাংলাদেশ এয়ার লাইন্স (সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ) একটি নোটিশে জানিয়েছিল, এখন থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ার লাইন্সে যারা লন্ডন থেকে সিলেট যাবেন তারা ঢাকায় ইমিগ্রেশন করে সেখানেই তাদের ব্যাগেজ ক্লেইম করতে হবে এবং ঢাকা থেকে আবার নতুন করে বোর্ডিং পাস নিয়ে সিলেটে যাবেন। এই সিদ্ধান্তের পর লন্ডন প্রবাসীসহ সিলেট অঞ্চলের ব্যবসায়ী ও সাধারণ জনগণের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়। তারা অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা ও লন্ডন-সিলেট সরাসরি ফ্লাইট পুনরায় চালুরও দাবি জানান।
বিজ্ঞপ্তিতে তাহেরা খন্দকার আরো জানান, স¤প্রতি বিভিন্ন মিডিয়ায় লন্ডন-সিলেট বিমান চলাচল বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেড কর্তৃক বন্ধ করা হয়েছে মর্মে প্রচার বা বক্তব্য প্রদান করা হচ্ছে- যা সঠিক নয়। গত এপ্রিল মাস থেকে সিলেট-লন্ডন সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনার জন্য বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেড কর্তৃক পরিকল্পনা ও প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়। অপরদিকে, সিলেট-লন্ডন সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনার ব্যাপারে গত ফেব্রæয়ারী মাসে সিলেট বিমানবন্দরের প্রস্তুতি সরেজমিনে যাচাই করে যুক্তরাজ্যের ডিপার্টমেন্ট অব ট্রান্সপোর্ট-ডিএফটি। কিন্তু কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে এ বিষয়ে সম্মতি প্রদানের দাপ্তরিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়নি। কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবে বিশ্বব্যাপি সৃষ্ট পরিস্থিতিতে গত মার্চ মাসে বিশ্বের বিভিন্ন বিমানবন্দর বন্ধ হয়ে যায়। একইভাবে বাংলাদেশের বিমানবন্দরসমূহেও বাণিজ্যিক অপারেশন বন্ধ করা হয়। তবে, গত জুন মাস থেকে পুনরায় সীমিত আকারে বিমানবন্দরে বাণিজ্যিক অপারেশন শুরু হয়েছে। সে কারণে গত এপ্রিল মাস থেকে বিমানের সিলেট-লন্ডন সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী কোয়ারান্টাইন ব্যবস্থার কারণে লন্ডন থেকে সিলেটগমনকারী যাত্রীদের বর্তমানে ঢাকা হয়ে সিলেটে যাওয়ার যে প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে, তা সাময়িক। বিমান বর্তমানে লন্ডনে সপ্তাহে একটি মাত্র ফ্লাইট পরিচালনা করছে। আশা করা যাচ্ছে, অদূর ভবিষ্যতে কোভিড-১৯ এর প্রভাব শেষ হবে এবং স্বাভাবিক অবস্থা পুনর্বহাল হবে।

শেয়ার করুন