মাশরাফিকে ভালোবাসা জানাতে পরিপূর্ণ গ্যালারি

স্পোর্টস রিপোর্টার, স্টেডিয়াম থেকে : জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ওয়ানডে দিয়ে অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। শেষবারের মতো করে দেশের সেরা এই অধিনায়কের অধিনায়কত্ব দেখতে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম দর্শকে পরিপূর্ণ।প্রথম দুই ওয়ানডেতে যেখানে দর্শকের জন্য হাহাকার করেছিলো গ্যালারি, সেখানে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে দর্শকে স্টেডিয়াম ঠাসা। স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণ ক্ষমতা মাত্র ১৮ হাজার। তবে এই ম্যাচে টিকিটের চাহিদা রয়েছে এর চেয়েও বেশী। স্টেডিয়াম প্রবেশ মুখে টিকেট কাউন্টারে টিকিটের জন্য রয়েছে দীর্ঘ লাইন। তবে টিকেট কাউন্টার সূত্রে জানা গেছে, কাউন্টারে অবিক্রিত টিকিটের পরিমাণ কম। কারণ এগুলো আগেই বিক্রি হয়ে গেছে।বাংলাশে ব্যাটিংয়ের মাঝ পথে বৃষ্টি হানা দেয় ম্যাচে। তবে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা অধিনায়কের অধিনায়ত্বের শেষ ম্যাচেও বৃষ্টি দর্শকদেরকে ও মাঠ থেকে ফেরাতে পারেনি।
এদিকে , মাশরাফির প্রতি ভারলাবাসা জানাতে দর্শকেরা প্লে-কার্ড,ব্যানার ও ফেস্টুন নিয়ে এসেছেন। প্লে-কার্ড,ব্যানার ও ফেস্টুন মাধ্যেমে ক্রিকেটে মাশরাফির অবদান ও মাশরাফিকে যে মিস করবেন তা ফুটিয়ে তুলেছেন।
এই ম্যাচে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে হাতছানি দিচ্ছে অনন্য এক মাইলফলক। কেননা এই ম্্যাচ জিততে পারলে সেটি হবে মাশরাফির নেতৃত্বে বাংলাদেশের ৫০তম জয়। সেই জয়ে সাক্ষী হতে দর্শকদের মাঝে ব্যাপক আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে।ক্রিকেট পাগল দর্শকেরা চান মাশরাফির শেষটাও যেন রঙিন হয়।
এদিকে ম্যাচটিকে ঘিরে জমকালো আয়োজন ছিলো বিসিবিও। মাশরাফির অধিনায়ক হিসেবে শেষ ম্যাচে উপস্থিত থাকতে ম্যাচের আগেই সিলেট এসেছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন ও বোর্ডের অন্যান্য কর্তারা।
ম্যাচ শুরু হওয়ার ঘন্টা খানেক আগে স্টেডিয়ামের সকল দর্শক প্রবেশ পথের গেইট খুলে দেওয়া হয়।গেইট ওপেন হলে এরপর মাঠে দর্শক প্রবেশ শুরু করতে থাকে।পুলিশের কড়া নিরাপত্তার তল্লাশির পর দর্শকেরা স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে পারছেন । তাই দর্শক স্টেডিয়ামে প্রবেশ কিছুটা মন্তর গতিতে হচ্ছে।দর্শকেরা তাদের নিজেদের মোবাইল ফোন ছাড়া আর অন্যকোনো কিছু নিয়ে মাঠে প্রবেশ করতে পারছেন না।

শেয়ার করুন