বিদেশ ফেরতদের আনাগোনা : সিকৃবির সকল গেইট বন্ধ

সিলেটের সকাল রিপোর্ট : বহিরাগতের আনাগোনা বেড়ে যাওয়ায় সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল গেইট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের কারণে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম ও হলগুলো বহু আগেই বন্ধ হয়েছে। নতুন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল গেট তালাবদ্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। নিরাপত্তা কমিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আব্দুল মালেক স্বাক্ষরিত জরুরী বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিশ^ব্যাপী কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস মহামারী আকার ধারণ এবং বাংলাদেশেও এ ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দেয়ার প্রেক্ষাপটে সরকার বিদেশ ফেরত সকলকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেনটাইনে থাকা বাধ্যতামূলক করেছে। এতৎসত্তে¡ও অনেক বিদেশ ফেরত ব্যক্তিবর্গ হোম কোয়ারেনটাইনে না থেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে অবাধ চলাচল করছে। এক্ষেত্রে সিলেট কৃষি বিশ^বিদ্যালয় ক্যাম্পাসেও অপরিচিত ব্যক্তিবর্গের আনাগোনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এসব বহিরাগতদের মধ্যে অনেকে কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত থাকতে পারে বলে কর্তৃপক্ষ মনে করছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে কর্তৃপক্ষ নিচের সিদ্ধান্তসমূহ গ্রহণ করেছে।
এর মধ্যে রয়েছে-বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল গেট বন্ধ থাকবে, তবে পরিচয় প্রদানপূর্বক চলাচল করা যাবে, গেট দিয়ে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল সম্পূর্ণরূপে বন্ধ থাকবে, অনুষদীয় ভবনসমূহের প্রধান গেট রাত ৯.০০ টা থেকে বন্ধ থাকবে, বিশ^বিদ্যালয়ের সার্বিক নিরাপত্তার স্বার্থে অভ্যন্তরীণ সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও আবাসিক হলে বসবাসরত শিক্ষার্থীদেরকে বিশ^বিদ্যালয় গেটে পরিচয় প্রদান করে চলাচল করতে হবে।
উল্লেখ্য, একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ থাকলে সিকৃবির অফিস ও প্রশাসনিক কার্যক্রম এখনো বন্ধ হয়নি। ফলে শিক্ষার্থীরা হল ছেড়ে বাড়ি চলে গেলেও শিক্ষক-কর্মকতা-কর্মচারীরা ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের আশেপাশের এলাকায় অবস্থান করছেন।

শেয়ার করুন