নিজেই আদালতে শুনানি করবে ‘উদ্ধত’ টারান্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে ভয়াবহ হামলার প্রধান ‘আসামি’ ব্রেনটন টারান্ট তার আইনজীবীকে বরখাস্ত করেছে এবং আগামী শুনানিতে সে নিজেই আদালতে কথা বলবে বলে জানিয়েছে।

আদালত নিযুক্ত টারান্টের আইনজীবী রিচার্ড পিটার্স সোমবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘টারান্টের শারীরিক ও মানসিক অবস্থা ভালো মনে হয়েছে এবং তিনি নিজেই নিজের প্রতিনিধিত্ব করবেন আদালতে।’ আগামী ৫ এপ্রিল তাকে দ্বিতীয়বারের মতো আদালতে হাজির করা হবে।

এর আগে শনিবার তাকে প্রাথমিকভাবে জেলা জজ কোর্টে হাজির করা হয়। তখন টারান্টের আইনজীবী হিসেবে প্রতিনিধিত্ব করেন পিটার্স।

তবে ‘শেতাঙ্গ শ্রেষ্ঠত্ববাদ’র অনুসারী অতি ডানপন্থী সন্ত্রাসী টারান্টের এ ঘোষণায় শঙ্কা দেখা দিয়েছে যে, আদালতে সে তার উগ্রবাদী দৃষ্টিভঙ্গি, যেটা সে পোষণ করে, প্রকাশ করে দিতে পারে।

গত শুক্রবার (১৫ মার্চ) নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আল নুর ও লিনউডের একটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে আল নুর মসজিদে স্বয়ংক্রিয় মেশিনগান দিয়ে ব্যাপক নৃশংসতা চালায় অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ২৮ বছর বয়সী ওই টারান্ট।

শুধু তাই নয়, ১৭ মিনিটের ওই হত্যাযজ্ঞের ঘটনা সরাসরি অনলাইনে প্রচারও করে সে। ধারণা করা হচ্ছে, লিনউডের মসজিদেও সে হামলা চালিয়েছে। উভয় ঘটনায় অন্তত ৫০ জন মুসল্লি নিহত এবং অন্তত ৬০ জন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে টারান্টের বিরুদ্ধে একটি খুনের মামলা হয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে আরো একাধিক মামলা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আলজাজিরা বলছে, রিচার্ড পিটার্স নামের ওই আইনজীবী বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘তিনি (টারান্ট) ইঙ্গিত দিয়েছেন, তিনি কোনো আইনজীবী চান না। তিনি নিজেই আদালতে কথা বলতে চান।’

এর আগে শনিবার যখন থাকে হাজির করা হয় তখন তার মধ্যে নৃশংসতা চালানোর পরও অনুতপ্ত মনে হয়নি। বরং হালকা হাসি দিয়েছেন।

শেয়ার করুন