সিলেটে মোটর সাইকেল চোর সিন্ডিকেটের ৫ সদস্য গ্রেফতার

Attok1স্টাফ রিপোর্টার : সিলেটে মোটর সাইকেল চোর সিন্ডিকেটের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি (তদন্ত) সঞ্জিত দাসের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওসমানীনগর এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে একটি মোটর সাইকেল উদ্ধারসহ সিন্ডিকেটের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে-সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর থানার ছবিরপুর গ্রামের আব্দুল খালিকের পুত্র মোঃ শাহীনুর রহমান (২৫), একই থানার লোদরপুর গ্রামের মৃত আব্দুল আহাদের পুত্র মোঃ শেমর আহমদ (২৭), একই এলাকার মৃত তানজির উল্ল্যাহর পুত্র মোঃ জুনু মিয়া (২৮), ওসমানীনগর নিজ মান্দারোকা গ্রামের গোলাম কিবরিয়ার পুত্র মোঃ রাজু আহমদ (৪০) ও নগরীর চৌকিদেখি এলাকার মৃত ফরিদ মিয়ার পুত্র ফোরজান আহমেদ জাহিদ (২৩)। গতকাল বুধবার বিকেলে পুলিশ গ্রেফতারকৃতদের আদালতে হাজির করে। পরে আদালত তাদেরকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
জানা গেছে, নগরীর গোটাটিকর এলাকার মোঃ উস্তার আলী পুত্র রিজওয়ান আহমদ শোভন গত ২৬ অক্টোবর তার (সিলেট-ল-১১-৭৮৪৭) নম্বর কালো রংয়ের মোটর সাইকেলটির ছবিসহ বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে বিক্রয় ডট কম ইন্টারনেটে আপলোড করেন। বিক্রয় ডট কমে মোটর সাইকেলটি দেখে আসামীরা তার সাথে এটি ক্রয় করতে মোবাইলফোনে যোগাযোগ করে এবং ২৯ অক্টোবর রাত সাড়ে ৯ টার দিকে দক্ষিণ সুরমার হুমায়ুন রশীদ চত্ত্বরের ফুলকলি সামনে মোটর সাইকেলটি নিয়ে আসার জন্য উভয়ের স্থান নির্ধারণ হয়। এর পর শোভন তাদের কথা মতো তার ছোট ভাইকে সাথে নিয়ে মোটর সাইকেলটি বিক্রয়ের জন্য ওইদিন রাত ৯ টা ২০ মিনিটে ওইস্থানে নিয়ে যান। এ সময় আসামী রাজু তার ২ সহযোগীকে সাথে নিয়ে গাড়ীটি পরিক্ষার জন্য ট্রায়াল দেয়ার কথা বলে শোভনের কাছ থেকে মোটর সাইকেলটি চন্ডিপুলের দিকে রওয়ানা হয় তারা। এর পর তারা মোটর সাইকেলটি নিয়ে উধাও হয়ে যায়। পরে তাদেরকে আর খোঁজাখুজি করে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় রিজওয়ান আহমদ শোভন বাদি হয়ে দক্ষিণ সুরমা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। নং-৩ (০৩-১১-১৫)।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি (তদন্ত) সঞ্জিত দাস জানান, গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ওসমানীনগর থানার নিজ মান্দারোকা গ্রামের রাজু আহমদের বাড়িতে বিশেষ অভিযান চালানো হয়। এ সময় ওই মোটর সাইকেল উদ্ধারসহ রাজুকে গ্রেফতার করা হয়। তার তথ্য মতে পরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে একে একে মোটর সাইকেল চোর সিন্ডিকেটের আরো ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি বলেন, একই ভাবে আরো ৩/৪টি মোটর সাইকেল চুরি করে আসামীরা ওসমানীনগর থানা, জগন্নাথপুর থানা ও দিরাই থানা এলাকায় বিক্রি করার কথা স্বীকার করেছে। এসব চোরাই মোটর সাইকেলগুলো উদ্ধারের জন্য উদ্ধার অভিযান এখনও অব্যাহত রাখা হয়েছে।

শেয়ার করুন