সিলেট বিভাগের ৭ পৌরসভায় নির্বাচন ১৬ জানুয়ারি

সিলেটের সকাল রিপোর্ট:দ্বিতীয় দফায় সিলেট বিভাগের ৭টিসহ সারাদেশে ৬১টি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর বুধবার (২ ডিসেম্বর) এই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২০ ডিসেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই ২২ ডিসেম্বর এবং প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৯ ডিসেম্বর।
তফসিল অনুযায়ী, দ্বিতীয় ধাপে সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ জেলার সুনামগঞ্জ, ছাতক ও জগন্নাথপুর,মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া ও কমলগঞ্জ এবং হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর ও নবীগঞ্জ পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
এর মধ্যে কেভল জগন্নাথপুর পৌরসভায় ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে। বাকিগুলোতে ব্যালট পেপারেই হবে ভোটগ্রহণ।

ইসি সচিব জানান, ৬১টি পৌরসভায় আগামী ১৬ জানুয়ারি ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।
ইসি সচিব জানান, ৬১টি পৌরসভার মধ্যে ২৯টিতে ইভিএম এবং ৩২টিতে ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোট হবে। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮ থেকে টানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

একই জেলার একাধিক পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রসঙ্গ টেনে মো. আলমগীর বলেন, ‘ব্যালট এবং ইভিএম ব্যবহারের ক্ষেত্রে আমরা বিবেচনায় নিয়েছি যে, একটি জেলায় একইসঙ্গে ব্যালটে এবং ইভিএমে ভোট হবে।
এদিকে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ আলমগীর জানান, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ভোটগ্রহণের বিষয়ে নির্বাচন কমিশন প্রাথমিক পর্যায়ে আলোচনা করেছে। এখানে তফসিল দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই। কেবলমাত্র ভোটের তারিখ ঘোষণা হবে। কমিশনের সিদ্ধান্ত হলে ভোটের তারিখ জানানো হবে। এক্ষেত্রে ডিসেম্বরের শেষ দিকে ভোট হতে পারে। তবে কোনও কারণে ডিসেম্বরে সম্ভব না হলে জানুয়ারিতে হবে।’ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ভোট অনুষ্ঠানে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ইসির হাতে সময় আছে বলেও সচিব জানান।

শেয়ার করুন