সাইফুর, রনি, মাসুম ও রবিউলের ছাত্রত্ব বাতিল


ডেস্ক রিপোর্টঃ সিলেটের মুরারি চাঁদ (এমসি) কলেজের ছাত্রাবাসে গৃহবধুকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত সাইফুর সহ
চার জনের ছাত্রত্ব এবং সার্টিফিকেট বাতিল করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। পাশাপাশি তাদের স্থায়ীভাবে এমসি কলেজ থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছে।

সোমবার (১২ অক্টোবর) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এমসি কলেজের অধ্যক্ষ মো. সালেহ আহমদ।

সাইফুর রহমান ছাড়া বহিস্কৃতরা অন্যরা হলেন,শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, মাহফুজুর রহমান মাসুম ও রবিউল হাসান। এই চারজনই সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলার আসামি। এর মধ্যে সাইফুর এই মামলার প্রধান আসামি। তারা ৪জনই এ ঘটনার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

জানা গেছে, এমসি কলেজের অধ্যক্ষের লিখিত দরখাস্তের প্রেক্ষিতে সোমবার ওই চার জনের ছাত্রত্ব এবং সার্টিফিকেট বাতিল করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে এক তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এ ঘটনায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে শাহপরাণ থানায় মামলা দায়ের করেন নির্যাতিত তরুণীর স্বামী।

এজাহারভূক্ত ৬ জনসহ মোট ৮ জনকে এই মামলায় গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নেওয়া হয়। তারা সকলেই আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সাইফুর রহমান, রবিউল ইসলাম, মাহমুদুর রহমান রনি, অর্জুন লস্কর, মাহফুজির রহমান মাসুক, তারেক আহমদ, আইনুদ্দিন ও মো. রাজন।

শেয়ার করুন