বিদেশগামীদের জন্য সিলেটে আলাদা আরেকটি কোভিড ল্যাব স্থাপনের আশ্বাস প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর

সিলেটের সকাল রিপোর্ট: বিদেশগামী যাত্রীদের চাপ সামলাতে সিলেটে আলাদা আরেকটি কোভিড-১৯ ল্যাব স্থাপনের চিন্তা-ভাবনা চলছে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি। মঙ্গলবার আটাব ও হাব নেতৃবৃন্দ তার সাথে দেখা করতে গেলে তাদের দাবির প্রেক্ষিতে তিনি এ আশ্বাস দেন।

এফবিসিসিআই’র পরিচালক ও সিলেট চেম্বারের সাবেক সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ জানান, বিভিন্ন দেশের সাথে বাংলাদেশের ফ্লাইট বেড়ে যাওয়ায় প্রবাসী যাত্রীদের করোনা টেস্টের চাপ বাড়ছে। বর্তমানে কেবল সিভিল সার্জন অফিসের মাধ্যমে ওসমানী হাসপাতালের আরটি পিসিআর ল্যাবে বিদেশ যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এমন বাস্তবতায় মন্ত্রীর কাছে বিষয়টি উপস্থাপন করা হলে তিনি ইতিবাচক সাড়া দেন বলে জানান খন্দকার সিপার আহমদ।

এদিকে, করোনাভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণের কারণে দীর্ঘ ৮ মাস পর গতকাল মঙ্গলবার প্রথম সিলেট সফরে আসেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী । বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে মঙ্গলবার সকাল ১১ টা ৪০ মিনিটে মন্ত্রী সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেন।

মন্ত্রীকে বিমান বন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জে স্বাগত জানান সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আলী দুলাল ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য এডভোকেট আজমল আলী, গোয়াাইনঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ, জৈন্তাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল আহমদ ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শামীম আহমদসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ।

মন্ত্রী সন্ধ্যায় সিলেট সার্কিট হাউসে সিলেটের বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা এবং জনপ্রতিনিধিদের সাথে আলাদা বৈঠক করেন। মন্ত্রী আগামী শুক্রবার পর্যন্ত তার নির্বাচনী এলাকা গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর ও কোম্পানীগঞ্জের বিভিন্ন বভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপন করবেন। আগামী শনিবার ১১ টা ২০ মিনিটে বিমান যোগে মন্ত্রীর ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে।

মন্ত্রী ইমরান আহমদের সাথে আটাব ও হাব নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাত \

সিলেটে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন এসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্সি অব বাংলাদেশ (আটাব) সিলেট ও হজ্জ এজেন্সিস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) সিলেটের নেতৃবৃন্দ।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট সার্কিট হাউসে মন্ত্রী’র সাথে এই সাক্ষাতে মিলিত হয়ে সিলেট তথা বাংলাদেশের প্রবাসীদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আলোচনা করেন। বিশেষ করে প্রবাসী রেমিটেন্স যোদ্ধারা যাতে করে আরো সহজে তাদের কর্মস্থলে ফিরতে পারেন এবং তাদের অন্যান্য সমস্যা নিয়ে এ সময় নেতৃবৃন্দ মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এ সময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এর বিভিন্ন সময়োপযোগী সিদ্ধান্তের ভূয়সী প্রশংসা করেন আটাব ও হাব নেতৃবৃন্দ। তারা আগামী দিনগুলোতে প্রবাসীদের কল্যাণে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় আরো আন্তরিক ভাবে কাজ করবেন বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। সবশেষে মন্ত্রী আটাব ও হাবের নব-নির্বাচিত কমিটির পরিচিত তুলে ধরার পাশাপাশি দীর্ঘ আট মাস পর তার সিলেট আগমনে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন-এফবিসিসিআই’য়ের পরিচালক ও সিলেট চেম্বারের সাবেক সভাপতি খন্দকার সিপার আহমেদ, আটাব ও হাবের চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন বাবুল, আটাবের কেন্দ্রীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট আজহারুল কবির চৌধুরী সাজু, আটাব সেক্রেটারি গিয়াস উদ্দিন আমজাদ, হাব সেক্রেটারি জহিরুল কবির চৌধুরী সিরু, গিয়াস উদ্দিন, আবুল কাশেম, মকসুদ আহমদে, খন্দকার ইসরার আহমেদ রকিসহ অন্যরা।

শেয়ার করুন