কমনওয়েলথ মিনিস্টারিয়াল গ্রুপ অন গায়ানা’র সভাপতি নির্বাচিত ড. এ কে আব্দুল মোমেন

সিলেটের সকাল ডেস্ক ।। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পররাষ্ট্র নীতির আলোকে গায়ানা-ভেনিজুলার আঞ্চলিক ও ভূখ-গত বিরোধ নিষ্পত্তিতে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধুর পররাষ্ট্র নীতি ছিল আলোচনার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বিরোধের শান্তিপূর্ণ মিমাংসা।

সাত সদস্য বিশিষ্ট কমনওয়েলথ মিনিস্টারিয়াল গ্রুপ অন গায়ানা’র সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি গায়ানা-ভেনিজুয়েলার ভূখ-গত বিরোধ নিষ্পত্তিতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাবেন বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

মঙ্গলবার বাংলাদেশের লন্ডন মিশন থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোমবার বিকেলে আয়োজিত গায়ানা বিষয়ক কমনওয়েলথ মিনিস্টারিয়াল গ্রুপ প্রথম বৈঠকে সভাপতিত্বকালে মোমেন একথা বলেন।

আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি সম্পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখে বাংলাদেশ তার প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে শান্তিপূর্ণভাবে উপকূলীয় সীমানা ও সমুদ্র সম্পদের শান্তিপূর্ণ নিষ্পত্তির বিষয়টি তুলে ধরে মোমেন বলেন, এই মিনিস্টারিয়াল গ্রুপের সভাপতি হিসেবে গায়ানা-ভেনিজুয়েলার এই ভূখ-গত বিরোধের একটি শান্তিপূর্ণ মিমাংসার চেষ্টা চালাবে বাংলাদেশ।

কমনওয়েলথের মহাসচিব ব্যারোনেস প্যাট্রিসিয়া স্কোটল্যান্ড, অ্যান্টিগুয়া অ্যান্ড বারবুদা, কানাডা, গায়ানা, জ্যামাইকা,দক্ষিণ আফ্রিকার পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা এবং ব্রিটেনের কমনওয়েলথ বিষয়ক দূত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাই কমিশনার ও গভর্নর অব দ্য কমনওয়েথ বোর্ড অব গভর্নর্স সাদিয়া মুনা তাসনিমও বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

কমনওয়েলথ মিনিস্টারিয়াল গ্রুপের অন্য সদস্য দেশগুলো হচ্ছে- অ্যান্টিগুয়া অ্যান্ড বারবুদা, কানাডা, গায়ানা, জ্যামাইকা, দক্ষিণ আফিকা ও ব্রিটেন।

শেয়ার করুন