কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।। ভারতীয় পুলিশের বিধিমালা লঙ্ঘন করায় দেশটির বিরোধী দল কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দিল্লি থেকে উত্তরপ্রদেশের হাথরসে যাওয়ার পথে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সংঘবদ্ধ ধর্ষণে নিহত তরুণীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পথে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, রাজধানী নয়াদিল্লি থেকে উত্তরপ্রদেশের হাথরাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণে নিহত তরুণীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে যান রাহুল গান্ধী ও তার বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

কিন্তু, উত্তরপ্রদেশ পুলিশ সেখানে যেতে বাধা দিলে দলীয় নেতাকর্মীরা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় পুলিশ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে কংগ্রেসের নেতাকর্মীদের লাঠিপেটা করে রাস্তা থেকে সরিয়ে দেয়।

আনন্দবাজার বলছে, কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তা রাহুলকে বলেন, ‘আপনি ১৪৪ ধারা ভাঙছেন।’পাল্টা রাহুল বলেন, ‘১৪৪ ধারার অপব্যবহার করছেন আপনারা।’

এনডিটিভি অনলাইন জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাহুল ও প্রিয়াঙ্কাসহ কংগ্রেস নেতা-নেত্রীদের প্রতিনিধি দলের একটি কনভয় হাথরসের পথে রওনা হয়। কংগ্রেসের এই কর্মসূচি ঠেকাতে ১৪৪ ধারা জারি করেছিল যোগী সরকার। রাহুল-প্রিয়াঙ্কাদের কনভয় হাইওয়ের গ্রেটার নয়ডায় আসতেই আটকে দেওয়া হয়। কিন্তু এরপরও রাহুল-প্রিয়াঙ্কা স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে হেঁটে রওনা দেন হাথরসের দিকে।

এসময় রাহুল টুইটারে লিখেছেন, ‘এইমাত্র পুলিশ আমাকে ধাক্কা দিয়েছে, লাঠিচার্জ করেছে এবং মাটিতে ফেলে দিয়েছে। আমি জানতে চাই এদেশে কি কেবল মোদিই হাঁটতে পারবেন? সাধারণ মানুষ কি হাঁটতে পারবেন না? আমাদের গাড়ি থামানো হয়েছে, তাই আমরা হাঁটছি।’

নদীয়ার এডিসিপি রনবিজয় সিং বলেছেন, ‘আমরা তাদের এখানে থামিয়েছি। মহামারি আইনের লঙ্ঘন হয়েছে। আমরা তাদের সামনে যেতে দেব না।’

শেয়ার করুন