এম সি কলেজে গণধর্ষণ: ৬ আসামীর ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ

সিলেটের সকাল রিপোর্ট: এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় এজাহার নামীয় ৬ আসামীর ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই ফারুক আহমদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় কড়া পুলিশী প্রহরায় তাদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে আনা হয়। বেলা দেড়টা পর্যন্ত তারা ওসিসিতে ছিল। নমুনা সংগ্রহহের পর ফের তাদেরকে পুলিশ হেফাজতে রিমান্ডে নেয়া হয়। এই সময়ে তাদের ডিএনএ’র স্যাম্পল কালেকশন করা হয়। মামলার প্রধান আসামী সাইফুর রহমান ছাড়াও অপর ৫ আসামী শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, তারেক আহমদ, অর্জুন লঙ্কর, রবিউল ইসলাম ও মাহফুজুর রহমানের নমুনা কালেকশন করা হয়। এই ৬ আসামীর বাইরে রাজন ও আইনুদ্দিন নামের সন্দেহভাজন দুই আসামী ৫দিনের রিমান্ডে রয়েছে। তবে, তাদের ডিএনএ স্যাম্পল কালেকশন করা হয়নি।
উল্লেখ্য, গত ২৫ সেপ্টেম্বর এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে বেড়াতে আসা দম্পতির স্বামীকে আটকে রেখে রাত সাড়ে ৯টার দিকে কলেজ ছাত্রাবাসে নববধূকে ধর্ষণ করে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এ ঘটনায় ৬ ছাত্রলীগ কর্মীর নামোল্লেখসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ওই গৃহবধূর স্বামী।

শেয়ার করুন