আমার নবীর অপমান, সইবেনা আর মুসলমান…

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ।। “আমার নবীর অপমান, সইবেনা আর মুসলমান”, ‘শাহজালালের তলোয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার’, ‘নারায়ে তাকবির, আল্লাহু আকবার’- এমন স্লোগানে শুক্রবার উত্তাল হয়ে ওঠে সিলেটের রাজপথ।

রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ফ্রান্সে মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর অবমাননার প্রতিবাদ জানাতে জুমার নামাজের পর বিভিন্ন মসজিদ থেকে মুসল্রিরা বের হয়ে আসেন রাজপথে।

মিছিল নিয়ে তারা বিভিন্ন সড়ক ঘুরে জড়ো হন কোর্ট পয়েন্টে। এসময় পুরো কোর্ট পয়েন্ট এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে যায়। বন্ধ হয়ে পড়ে যান চলাচল। স্লোগানে উত্তাল মুসল্লিদের মুখে ছিল ফ্রান্সের প্রতি ঘৃণা।

পরে বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগরীর আয়োজনে সেখানে অনুষ্ঠিত হয় বিক্ষোভ সমাবেশ। সমাবেশ থেকে বক্তারা ফ্রান্স সরকারের ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জন ও সার্ভিস বয়কট করার আহ্বান জানান।

পাশাপাশি ইসলাম ও বিশ্ব নবীর অবমাননার কারণে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে মুসলমানগন জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে সর্বাত্মক আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাবে বলেও উল্লেখ করেন।

জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগরীর সভাপতি মাওলানা হাবীব আহমদ শিহাবের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আবিদ হাসান ও প্রচার সম্পাদক মাওলানা মাছুম আহমদের যৌথ পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমান, জেলা জমিয়তের সেক্রেটারী মাওলানা আতাউর রহমান, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগর সহ সভাপতি মাওলানা শহীদ আহমদ, মাওলানা নুর আহমদ ক্বাসেমী, মাওলানা আহমদ সগীর প্রমুখ নেতারা বক্তব্য দেন।

পরে সমাবেশ থেকে জাতীয় ইমাম সমিতির পক্ষ হতে বাংলাদেশ সরকার ও জাতিসংঘের কাছে কিছু দাবি পেশ করেন জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগর সভাপতি মাওলানা হাবীব আহমদ শিহাব। দাবিগুলো হলো:
১. ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের বিরুদ্ধে জাতিসংঘ কর্তৃক আইন পাশ করতে হবে ।
২. বিশ্ব মুসলিমের কাছে ফ্রান্স সরকার অবিলম্বে ক্ষমা চাইতে হবে।
৩. ক্ষমা চাওয়ার আগ পর্যন্ত ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জন করতে হবে।
৪. বিশ্ব মুসলিমরাষ্ট্রের সংগঠন ও.আই.সি কর্তৃক ফ্রান্স সরকারকে উক্ত ঘৃণ্য কাজের জন্য ক্ষমা চাইতে চাপ প্রয়োগ করতে হবে
৫. বাংলাদেশ সরকার ফ্রান্স সরকারকে রাষ্ট্রীয়ভাবে কঠোর ভাষায় নিন্দা জানাতে হবে ।
৬. বাংলাদেশের সকল ধর্ম বর্ণের প্রতি সংখ্যাগরিষ্ট মুসলমানগন অতীতের মতো সাম্প্রদায়িক স¤প্রীতি অক্ষুন্ন রাখতে হবে।

শেয়ার করুন