২০ হাজার টাকার জন্য বিয়ানীবাজার থেকে যুবককে অপহরণ, কুলাউড়ায় উদ্ধার

বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি :: মাত্র ২০ হাজার টাকার জন্য সিলেটের বিয়ানীবাজার থেকে এক বেসরকারি চাকরিজীবী যুবককে অপহরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অপহৃত যুবক আব্দুল করিম লস্কর (৩১) জকিগঞ্জ উপজেলার পূর্ব কসকনকপুর গ্রামের মৃত রফিক আহমদ লস্করের ছেলে। তিনি এ্যাপেক্স ফার্মাসিউটিকেলের বিয়ানীবাজার উপজেলার প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত আছেন।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) বেলা ২টার দিকে পৌরশহরের প্রমথ নাথ দাস (কলেজ রোড) এলাকা থেকে তাকে অপহরণ করা হয়। পরে পাশ্ববর্তী উপজেলা মৌলভীবাজারের বড়লেখার কানুনগো বাজারে গেলে স্থানীয় জনতা অপহরণকারীদের আটক করে পুলিশে দিয়েছেন। উদ্ধার করা হয়েছে অপহৃত ব্যক্তিকেও।

গ্রেপ্তারকৃত ৫জনের মধ্যে একজনের বাড়ি বড়লেখা ও বাকী ৪ জনের বাড়ি জুড়ি উপজেলায়। তারা হলেন মাহবুব, শাকিল, সুমন, ফরমুজসহ আরও একজন।

বিয়ানীবাজার থানার উপ-পরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম জানান, ব্যবসার পাওনা টাকার জের ধরে অপহরণের এ ঘটনা ঘটে। দীর্ঘদিন আগে থেকে ২০ হাজার টাকা পাওনা পরিশোধ না করায় ভিকটিমকে অপহরণ করা হয়।

তিনি বলেন, বিয়ানীবাজার পৌরশহর থেকে তাকে একটি মাইক্রোতে করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়ার পথে বড়লেখা এলাকার কানুনগো বাজারে গেলে স্থানীয় জনতা অপহরণকারীদের আটক করেন। ওই বাজারে যাওয়ার পর ভিকটিম করিম লস্কর গাড়ির গ্লাস ভেঙ্গে বাইরে বের হতে চান এবং চিৎকার শুরু করেন। তখন বাজারের লোকজন ধাওয়া করে তাদের আটক করেন। পরে বড়লেখা থানার পুলিশ এসে ভিকটিমসহ সবাইকে থানায় নিয়ে যায়।

বড়লেখা থেকে বিয়ানীবাজার থানায় যোগাযোগ করা হলে উপ-পরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম, সহকারী উপ-পরির্দশক আব্দুল হালিম ভিকটিমসহ অপহরণকারীদের থানায় নিয়ে আসেন।

বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিল্লোল রায় বলেন, অপহরণকারীদের বিরুদ্ধে ভিকটিম বাদী হয়ে মামলা করেছেন। প্রকৃত ঘটনা জানতে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। অপহরণকারীদের কাছ থেকে একটি মাইক্রো উদ্ধার করা হয়েছে।

শেয়ার করুন