লিডিং ইউনিভার্সিটিতে নৈতিকতা ও সামাজিক মূল্যবোধ বিষয়ক সেমিনার

ডেস্ক রিপোর্ট: লিডিং ইউনিভার্সিটির ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ (মেজর: ইসলামী অর্থনীতি ও ব্যাংকিং) এর উদ্যোগে সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর ২০২০) “নৈতিকতা ও সামাজিক মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠায় ইসলামের শিক্ষা: আমাদের করণীয়” শীর্ষক ভার্চুয়াল সেমিনার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। লিডিং ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান দানবীর ড. রাগীব আলীর সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান, কবি জসিম উদ্দিন হল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর বর্তমান প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আব্দুর রশীদ।
সেমিনারে জ্ঞানগর্ভ আলোচনা করার জন‍্য প্রধান আলোচককে ধন্যবাদ জানিয়ে দানবীর ড. রাগীব আলী বলেন, আমাদেরকে নৈতিকতা ও সামাজিক মূল‍্যবোধে আলোকিত হয়ে বর্তমান তরুণ প্রজন্মকে লালিত করতে হবে। তাহলেই পরিবার তথা সমাজ এবং দেশ থেকে অন‍্যায়, অত‍্যাচার এবং জুলুমকে দূরীভূত করা সম্ভব হবে। গড়ে উঠবে একটি পরিপূর্ণ এবং সুশৃঙ্খল সমাজ ব‍্যবস্থা।
বৈশ্বিক মহামারি পরিস্থিতিে যারা মারা গেছেন তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আব্দুর রশীদ বলেন, বতর্মান প্রেক্ষাপটে আজকের সেমিনারের আলোচ‍্য বিষয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, নৈতিকতার স্খলন হলে মানুষ পশুতে রূপান্তরিত হয়। ইসলাম সমগ্র বিশ্ববাসীর সম্পদ। বিশ্বমানবের কর্ম, বিশ্বাস, চিন্তা ভাবনা থেকে শুরু করে এখানে রয়েছে সমস্ত মানবজাতির কল‍্যানের দিকনির্দেশনা। সর্বকালের জন‍্য প্রয়োজনীয় এই শিক্ষার জন‍্য আমাদের করণীয় সম্পর্কে বলেন, প্রথমে আমাদের নিজেদেরকে আলোকিত হতে হবে এবং তারপর অন‍্যদেরকে আলোকিত করতে হবে। সৎকাজের মাধ্যমে অপরকে অনুপ্রাণিত করতে হবে, তাহলেই তারা ভালো কাজের দিকে ধাবিত হবে। মানুষকে মানুষ হিসেবে প্রকাশ করে সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে নৈতিকতার উম্মেষ ঘটিয়ে ও মূল‍্যবোধের মাধ্যম নেতৃত্ব দিতে হবে। সেই সাথে নিজেকে পরিশোধিত করে মানব সেবায় ব্রত হতে হবে। তাহলেই সামাজিক অবক্ষয় রোধ হবে।
তিনি বলেন, অন‍্যায়কে প্রতিহত করা, প্রতিরোধ গড়ে তোলা এবং যারা খারাপ নিমজ্জিত হচ্ছে তাদেরকে মুক্ত করতে হবে। কোনভাবেই অন‍্যায়ের সঙ্গী হওয়া যাবে না। আদর ও ভালোবাসা দিয়ে যুব সমাজকে সঠিক পথে আনতে হবে। উপহাস এবং অন‍্যের প্রতি খারাপ ধারণা পোষণ না করে নিজের আদর্শ দিয়ে ছেলে মেয়ে এবং ভাই বোনদের মধ্যে নিজেকে রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত করতে হবে। মনে রাখতে হবে, আমার পরিবার সমাজ এবং দেশের নিরাপত্তার জন‍্য আমাদের নিরাপদ মানুষের প্রয়োজন। তিনি আরও বলেন,
নৈতিকতা ও সামাজিক মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠায় ইসলামী জীবন ব্যবস্থার যথাযথ অনুসরণ জরুরী নৈতিকতাই সামাজিক শান্তি ও নিরাপত্তার রক্ষকবচ দেশ ও জাতির সার্বিক কল্যাণের স্বার্থে জাতীয় জীবন থেকে সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় দূর করার উদ্যোগ নিতে হবে।

ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক মুহাম্মদ জিয়াউর রহমানের সঞ্চালনায় সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় প্রধান ফজলে এলাহি মামুন। এতে আরও বক্তব্য রাখেন বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস‍্য আব্দুল হাই, আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ‍্যাপক ড. এম. রকিব উদ্দিন, কলা ও আধুনিক ভাষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নাসির উদ্দিন আহমেদ, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মেজর (অব) মো. শাহ আলম, পিএসসি, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. শাহ আলম এবং ইসলামিক ফাউন্ডেশন, হবিগঞ্জ এর উপ-পরিচালক মা: শাহ মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তিলাওয়াত করেন শিক্ষার্থী হাফিজ ক্বারী আহমেদ রবি। সেমিনারে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন