প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক কবি আলী ইসমাঈল আর নেই

ডেস্ক রিপোট:প্রবাসে মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিশিষ্ট লেখক, কবি, গবেষক ও জেনারেল এমএজি ওসমানীর ঘনিষ্ঠ সহচর আলহাজ্ব আলী ঈসমাইল আর নেই। গতকাল মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে বার্মিংহামের হার্টল্যন্ড হাসাপাতালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি… রাজিউন)।
বৃহত্তর সিলেট গণদাবী পরিষদ ও যুক্তরাজ্য জাতীয় জনতা পার্টির চেয়ারম্যান, যুক্তরাজ্যে বাঙালির প্রাচীনতম সংগঠন বাংলাদেশ মাল্টিপারপাস সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, বার্মিংহাম সাহিত্য পরিষদের অন্যতম সদস্য আলহাজ্ব আলী ঈসমাইলের মৃত্যুতে বাঙালি কমিউনিটির মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৮১ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, সন্তানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি বাড়ি বিয়ানীবাজার উপজেলার মাথিউরায়।
বার্মিংহামে বসবাস করলেও জীবদ্দশায় আলহাজ্ব আলী ঈসমাইল শুধু বার্মিংহাম নয় যুক্তরাজ্যের পুরো বাঙালি কমিউনিটির উন্নয়নের জন্য নানাভাবে কাজ করে গেছেন। সে কারণে এজন্যে পুরো যুক্তরাজ্যের বাঙালি কমিউনিটির কাছে তিনি ছিলেন অতি পরিচিত মুখ। মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি আতাউল গণি ওসমানীর অত্যন্ত কাছের মানুষ ছিলেন তিনি। এ জন্যে তিনি আতাউল গণি ওসমানীর উপর গবেষণা করে কয়েকটি বইও লিখেন।
এশিয়ান আমেরিকা ইউনিভার্সিটি থেকে অনারারি পিএইচডি ডিগ্রিপ্রাপ্ত আলহাজ্ব আলী ঈসমাইল যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন সংগঠনের সাথে ওতোপ্রতোভাবে জড়িত ছিলেন। নয়টি বইয়ের লেখক আলী ঈসমাইল প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে ক্যাম্পেইনের জন্য বৃটেনের বিভিন্ন শহর ছাড়াও ফ্রান্স বেলজিয়ামসহ বিভিন্ন দেশে ঘুরে বেরিয়েছেন এবং আন্তর্জাতিক লবিয়ের জন্য কাজ করেছেন। এক সময় সরাসরি যুদ্ধে যাবার প্রস্তুতি নিলেও ওসমানীর নির্দেশে প্রবাসে থেকে ফান্ড রাইজিংসহ নানাভাবে মুক্তিযুদ্ধের জন্য কাজ করেন । আলহাজ্ব আলী ঈসমাইল দেশেও নানা সামাজিক কর্মকান্ডে জড়িত ছিলেন।

শেয়ার করুন