এমসি কলেজে গণধর্ষণ: আদালতে ২২ ধারায় ভিকটিমের জবানবন্দি

 

গ্রেফতার এম সি কলেজে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী সাইফুর রহমান

সিলেটের সকাল রিপোর্ট:সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন নির্যাতিতা গৃহবধূ। রোববার দুপুরে সিলেট মহানগর হাকিম ৩য় আদালতের বিচারক শারমিন খানম নীলার কাছে এ জবানবন্দি দেন ভিকটিম।

সিলেট মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) অমূল্য কুমার চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, দুপুরে পুলিশ ঐ গৃহবধূকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আদালতে নিয়ে আসা হয়। দুপুর দেড়টার দিকে তিনি আদালতে ওই রাতের ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা দেন। বেলা সাড়ে ৩টা পর্যন্ত আদালত তার জবানববন্দি লিবিবদ্ধ করেন।
গত শুক্রবার বিকালে এমসি কলেজে বেড়াতে গিয়েছিলেন সিলেটের দক্ষিণ সুরমার এক দম্পতি। এ সময় কলেজ ক্যাম্পাস থেকে ৫-৬ জন যুবক জোরপূর্বক কলেজের ছাত্রাবাসে নিয়ে যায় দম্পতিকে। সেখানে একটি কক্ষে স্বামীকে আটকে রেখে ১৯ বছরের নববধূকে দলবেঁধে ধর্ষণ করে তারা।
খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে নববধূকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি’তে ভর্তি করে শাহপরাণ থানা পুলিশ।
এদিকে, ধর্ষণের ওই ঘটনায় হওয়া মামলায় রোববার সকালে প্রধান আসামি সাইফুর রহমান ও চার নম্বর আসামি অর্জুন লস্করকে গ্রেফার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে সাইফুরকে সুনামগঞ্জের ছাতক সীমান্ত এলাকা থেকে এবং অর্জুন লস্করকে হবিগঞ্জের মাধবপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়।

শেয়ার করুন