কবি শামসুর রাহমানের ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

সিলেটের সকাল ডেস্কঃ জনতার কবি, স্বাধীনতার কবি শামসুর রাহমানের ১৪তমমৃত্যুবার্ষিকী আজ।

২০০৬ সালের ১৭ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন (তৎকালীন পিজি হাসপাতাল) অবস্থায় ৭৭ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন বাংলা ভাষার অন্যতম এই আধুনিক কবি।

প্রতিবাদী কবি হিসেবে দেশজোড়া খ্যাতি থাকলেও তার পেশা ছিল সাংবাদিকতা। ১৯৫৭ সালে দৈনিক মর্নিং নিউজে সহসম্পাদক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৫৭ থেকে ১৯৫৯ সাল পর্যন্ত রেডিও পাকিস্তানের অনুষ্ঠান প্রযোজক ছিলেন। এরপর তিনি আবার ফিরে আসেন দৈনিক মর্নিং নিউজে। সেখানে তিনি ১৯৬০ থেকে ১৯৬৪ সাল পর্যন্ত সহযোগী সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬৪ সালের নভেম্বরে দৈনিক পাকিস্তানের (স্বাধীনতা-উত্তর দৈনিক বাংলা) সহকারী সম্পাদক পদে যোগ দেন এবং ১৯৭৭ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে তিনি একই সঙ্গে দৈনিক বাংলা ও সাপ্তাহিক বিচিত্রার সম্পাদক নিযুক্ত হন। ১৯৮৭ সালে সামরিক সরকারের শাসনামলে তাকে পদত্যাগে বাধ্য করা হয়। এরপর তিনি অধুনা নামের একটি মাসিক সাহিত্য পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৪৯ সালে সাপ্তাহিক সোনার বাংলা পত্রিকায় তার প্রথম কবিতা প্রকাশিত হয়।

শামসুর রাহমানের প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘প্রথম গান, দ্বিতীয় মৃত্যুর আগে’ প্রকাশের পরপরই তিনি সচেতন পাঠক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তার ‘আসাদের শার্ট’ কবিতায় ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান যেন সচিত্র রূপ পায়। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে শামসুর রাহমান সপরিবারে তাদের পৈতৃক বাড়ি নরসিংদীর পাড়াতলী গ্রামে চলে যান। এপ্রিলের প্রথম দিকে তিনি যুদ্ধের ভয়াবহতা দেখে বেদনামথিত হয়ে লেখেন ‘স্বাধীনতা তুমি’ ও ‘তোমাকে পাওয়ার জন্য, হে স্বাধীনতা’সহ বেশকিছু কবিতা।

১৯২৯ সালের ২৩ অক্টোবর পুরনো ঢাকার মাহুতটুলীর ৪৬ নং বাড়িতে কবি জন্মগ্রহণ করেন। মায়ের নাম আমেনা খাতুন ও পিতা মুখলেসুর রহমান চৌধুরী।

শেয়ার করুন