রোটারী বর্ষে কাগজ ও প্লাস্টিকের ব্যবহার কমাবে রোটারী ক্লাব

ডেস্ক রিপোর্ট: রোটারী বর্ষে সেবামূলক ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। বুধবার ১১৬তম রোটারী বর্ষ উপলক্ষে নগরীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বছরব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রোটারী আন্তর্জাতিক জেলা ৩২৮২ এর গভর্ণর ড. বেলাল উদ্দিন আহমদ।
লিখিত বক্তব্যে বেলাল উদ্দিন আহমদ বলেন, দেশব্যাপী বিভিন্ন রোটারী ক্লাবগুলো গরিব ও দুস্থ জনগণের জন্য স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও মানব সম্পদ উন্নয়নে কাজ করেছে।
অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে চলতি বছর আমরা পরিবেশ সুরক্ষা কার্যক্রম ও রোটারী স¦াস্থ্যসেবা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করব। পরিবেশের সুরক্ষার কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে বৃক্ষরোপণ ও রোটারী মিশন গ্রিন প্রকল্প। ২০২০ সালের আগস্টে এবং আগামী বছরের মার্চে পক্ষকালব্যাপী বৃক্ষরোপণ অভিযান পরিচালিত হবে। এছাড়া প্রথমবারের মতো রোটারীয়ানদের মধ্যে গ্রিভ হ্যাবিট চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে থাকবে রোটারী কার্যক্রমে কাগজ এবং প্লাস্টিকের ব্যবহার কমানো। পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখাসহ বিভিন্ন কার্যক্রম। ৬১টি বাড়িতে সরঞ্জামসহ সৌরবিদ্যুৎ প্যানেল স্থাপন করা হবে। পানির অপচয় কমানো এবং ব্যবহারযোগ্য পানির সংস্থান বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করা হবে।
তিনি বলেন, রোটারী স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমের মধ্যে কোভিড-১৯ এর কারণে দুটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করা হয়েছে। যার একটি এ সময়ে চিকিৎসাসেবা প্রদানের জন্য কাজ করবে এবং অন্যটি দুর্যোগ মুহূর্তে খাদ্য সহায়তা দেবে। করোনাকালীন সময়ে ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮২ এর আওতাধীন বিভিন্ন করোনা স্পেসালাইজড হসপিটালে অক্সিজেনসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্যসেবা, যন্ত্রপাতির ব্যবস্থা করা এবং রোটারীয়ানদের চিকিৎসকের সহযোগিতায় একটি বিশেষ টিম গঠন করে স্বাস্থ্যসেবায় অবদান রাখা। এছাড়া, বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন পরিচালনা করা এবং কমপক্ষে ১০ জন গরিব শিশুকে বিনামূল্যে হার্ট অপারেশন করা হবে।
এ বছর রোটারী ফাউন্ডেশনের সহায়তায় অন্তত ৩০টি রোটারী ক্লাবের মাধ্যমে বিনামূল্যে পানিয় জল ও শৌচাগারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলে গরিব ও অসহায় মানুষদের চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়েছে। বিনামূল্যে কম্পিউটার এবং ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। বিধবা ও অসহায় মানুষদের গৃহায়নের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিব›িদ্বদের কল্যাণে বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পাদন করা হয়েছে। চলতি বছরে অন্যান্য বছরের ন্যায় সকল সেবামূলক কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রোটারি ক্লাব অব মেট্রোপলিটন সিলেটের প্রেসিডেন্ট রেহান উদ্দিন, ডিস্ট্রিক্ট ট্রেইনার পিজিডি শহীদ আহমদ চৌধুরী, ডিস্ট্রিক্ট সেক্রেটারি পিপি আহমদ রেজাউল করিম জুবায়ের, এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারি পিপি ফরিদ উদ্দিন রিয়াদ, এডিশনাল লে. গভর্নর পিপি ড. তোফায়েল আহমদ।

শেয়ার করুন