লিডিং ইউনিভার্সিটির উদ্যোগে  পবিত্র ঈদ-উল- ফিতর্ ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মদিন উদযাপন

ডেস্ক রিপোর্ট:করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর সংক্রমণে বৈশ্বিক এই দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অনলাইনে পবিত্র ঈদ-উল- ফিতর্ ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মদিন উদযাপন করেছে সিলেটের প্রথম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় লিডিং ইউনিভার্সিটি।
লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য (দায়িত্বপ্রাপ্ত) শ্রীযুক্ত বনমালী ভৌমিকের উদ‍্যোগে ডিজিটাল পদ্ধতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিরারকে নিয়ে মঙ্গলবার (২৬ মে ২০২০) বেলা ১২টায় শুরু হয়ে “এলো খুশির ঈদ, নজরুলের অমর গীত” অনুষ্ঠান চলে বিকাল ৩টা পর্যন্ত।

অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্যে সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন লিডিং ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান দানবীর ড. রাগীব আলী।
এতে বোর্ড অব ট্রাস্টিজের ভাইস চেয়ারম্যান ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প‍্যাসিফিকের উপাচার্য (দায়িত্বপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. এম. আর কবির, লিডিং ইউনিভার্সিটির সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. এএনএম মেশকাত উদ্দিন, বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য আব্দুল হাই, মিসেস সাদিকা জান্নাত চৌধুরী, রাগীব-রাবেয়া ফাউন্ডেশনের সচিব মেজর (অব) শায়েখুল হক চৌধুরী, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক‍্যাম্পাস নির্মাণ প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী আক্তারুজ্জামান ঈদের শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. কাওসার হাওলাদারের সঞ্চালনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আয়োজক কমিটির আহবায়ক স্থাপত্য বিভাগের উপদেষ্টা অধ‍্যাপক সৈয়দা জেরিনা হোসেন এবং ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ফজলে এলাহী মামুনের স্বাগত বক্তব্যের পর জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের বিখ্যাত “ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ” গানটি একসঙ্গে পরিবেশন করেন কলা ও আধুনিক ভাষা অনুষদের ডিন প্রফেসর নাসির উদ্দিন আহমেদের চার ছেলে সুহৃদ, স্বাগত, স্বাধীন ও সাগ্নিক। এরপর গজল পরিবেশন করেন আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. রকিব উদ্দিন।
কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠানে নজরুলের লেখনিতে ইসলামের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে একদিকে তিনি যেমন ইসলামি ঐতিহ্যের জয়গান গেয়েছেন ; অপরদিকে মুসলমানদের ভ্রাতৃত্ববোধ বিশ্বময় ছড়িয়ে দিতে চেয়েছেন বিষয়ে আলোচনা করেন পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. মোস্তাক আহমাদ দীন, নজরুলের বিখ্যাত বিদ্রোহী কবিতা “বল বীর- বল উন্নত মম শির!” আবৃত্তি করেন রেজিস্ট্রার মেজর (অব) মো. শাহ আলম পিএসসি। এক অসাধারণ সৃষ্টিশীল পরিবেশনায় বিভিন্ন গানের প্রেক্ষাপট তুলে ধরে নজরুলের প্রেমের গানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানকে মনোমুগ্ধকর করেন উপাচার্যেল সহধর্মীনি মিসেস রাখী ভৌমিক।

পরবর্তীতে বিভিন্ন গান ও কবিতা পরিবেশন করেন ইংরেজি বিভাগের বিভগীয় প্রধান মো. রেজাউল করিম ও তাঁর মেয়ে তটিনী লাজবন্তী, সহকারি অধ্যাপক মিসেস রুম্পা শারমিন, মানফাত জাবিন হক, প্রভাষক আবু সাইদ মো. নাহিদ, নজরুলকে নিয়ে স্বরচিত ছড়া পরিবেশন করেন স্থাপত্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান স্থপতি রাজন দাশ, সিএসই বিভাগের প্রভাষক কাজী মো. জাহিদ হাসান, সহকারি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সুরঞ্জন দাশ এবং সহকারি রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আলমগীর হোসাইন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে গান পরিবেশন করেন ব‍্যবসায় প্রশাসন বিভাগের বিভাগী প্রধান মো. শাহানশাহ মোল্লার মেয়ে লাবিবা, সহকারি অধ্যাপক মোসা. হালিমা বেগমের স্বামী সাইদ আহমেদ হাসান লিমন, রাগীব-রাবেয়া ফাউন্ডেশনের হেড অব অডিট মোহাম্মদ কবির আহমেদের মেয়ে নাবিহা আহমেদ, সহকারি পরিচালক (অর্থ ও হিসাব) মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরীর মেয়ে সামিয়া তাসনিম সাফা, ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. কাওসার হাওলাদারের দুই মেয়ে তা‌নিশা ও অনন্যা, এবং রেজিস্ট্রার অফিস কর্মকর্তা অনুরাধা সরকারের মেয়ে অঙ্কিতা দাশ নন্দিনী।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, বিভিন্ন দপ্তর প্রধান ও কর্মকর্তাবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

সর্বশেষ পরিবেশনা মিসেস রাখী ভৌমিকের সিলেটী গানের মধ‍্যদিয়ে এবং আগামী দিনগুলো সবার জন্য সুন্দর হোক এবং সবাই সুস্থ ও নিরাপদে থাকুক এই কামনায় “এলো খুশির ঈদ, নজরুলের অমর গীত” অনুষ্ঠান সমাপ্ত হয়।

শেয়ার করুন