রোববার থেকে শেয়ারবাজারে তিন ঘন্টা করে লেনদেন

ডেস্ক রিপোর্ট:দীর্ঘ দুই মাস বন্ধ থাকার পর আগামী রোববার শুরু হচ্ছে দেশের দুই শেয়ারবাজার ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই ও সিএসই) লেনদেন।

উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালকদ্বয় সংবাদ মাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তারা জানান, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে কিছুটা সীমিত আকারে অর্থাৎ প্রতিদিন তিন ঘণ্টা করে লেনদেন হবে।

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে গত ২৫ মার্চের পর দেশব্যাপী সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। সাত দফা বৃদ্ধির পর ওই ছুটি শেষ হচ্ছে ৩০ মে (শনিবার)। নতুন করে ছুটি বাড়ানো হবে না- সরকারের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর বৃহস্পতিবার শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির কমিশন সভায় দুই স্টক এক্সচেঞ্জকে লেনদেন চালুর বিষয়ে অনাপত্তি দেওয়া হয়। এর পরই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিএসই ও সিএসই।

ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছানাউল হক জানান, ৩১ মে থেকে পুনরায় লেনদেন চালুর বিষয়ে প্রস্তুতি ছিল, অপেক্ষা ছিল শুধু বিএসইসির অনাপত্তির।

তিনি বলেন, আগামী রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় যথারীতি শেয়ারবাজারের লেনদেন শুরু হচ্ছে। তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় এখন দৈনিক তিন ঘণ্টা করে লেনদেন হবে। স্টক এক্সচেঞ্জের অফিস সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পরিচালিত হবে। ব্রোকারেজ হাউসগুলোকেও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে অফিস খোলার জন্য চিঠি দেওয়া হবে।

চট্টগ্রামকেন্দ্রীক দেশের দ্বিতীয় স্টক এক্সচেঞ্জ সিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মামুন রশীদও রোববার সাড়ে ১০টা থেকে লেনদেন শুরু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনেই স্টক এক্সচেঞ্জের দাপ্তরিক কার্যক্রম চলবে। সকল কর্মকর্তা-কর্মচারিদের সুরক্ষা নিশ্চিত করা হবে। পৃথক পরিবহনে আনা নেওয়ার ব্যবস্থা হবে। পাশাপাশি একটা অংশ বাড়িতে বসে কাজ করতে হবে- তারও সুযোগ তৈরি করার কথা ভাবা হচ্ছে।

নিজেদের সুরক্ষার জন্য ব্রোকারেজ হাউসে না এসে বাসায় বা নিজ অবস্থানে থেকেই শেয়ার কেনাবেচার অর্ডার দেওয়ার জন্য বিনিয়োগকারীদের অনুরোধ জানিয়েছেন মামুন রশীদ। তিনি বলেন, প্রযুক্তির সহায়তায় এখন শেয়ার কেনাবেচার সুযোগ আছে। চাইলে মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করে বিনিয়োগকারীরা শেয়ার কেনাবেচা করতে পারবেন। এজন্য ব্রোকারেজ হাউস বা মার্চেন্ট ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে, তারাই ব্যবস্থা করে দেবে। এছাড়া মোবাইল ফোন বা টেলিফোনে অর্ডার করেও শেয়ার কেনাবেচা করা হয়। ব্রোকারেজ হাউসগুলোকেও এমন লেনদেনে নিজ গ্রাহকদের উৎসাহি করার পরামর্শ দেন তিনি।

শেয়ার করুন