ছাতকে মোবাইল ফোন নিয়ে সংঘর্ষে শিশুসহ আহত ২০

ছাতক প্রতিনিধি: ছাতকে দু’পক্ষের সংঘর্ষে শিশুসহ ২০ জন আহত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। গুরুতর একজনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, গত কয়েকদিন ধরে মির্জাপুর গ্রামের আব্দুস ছালামের পুত্র আঙ্গুর মিয়া ও একই গ্রামের রমজান আলীর পুত্র রুবেল মিয়ার মধ্যে একটি মোবাইল ফোন ক্রয়-বিক্রয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বিষয়টি সালিশ-বৈঠকের মাধ্যমে নিষ্পত্তিরও চেষ্টা করছিলেন স্থানীয় গন্যমান্য লোকজন। শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর গ্রামের মসজিদের রাস্তায় উভয় পক্ষের মধ্যে এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনার জের ধরেই বিকেলে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয়-অস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। প্রায় ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষে শিশুসহ উভয় পক্ষের অন্তত ২০ ব্যক্তি আহত হয়। গুরুতর আহত মনফর আলীকে (৪৫) ভর্তি করা হয় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। আক্তার হোসেন(২৫), সুহেল আহমদ(৩১), আনসার আলী(২০), আলী হোসেন(৩২), সৌকুম আলী(৬০), রুবেল মিয়া(১০), মাহবুব(১৪), আক্তার আলী(১৮), দেলোয়ার(২০)সহ অন্যান্য আহতদের ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ছাতক থানার ওসি মোস্তফা কামাল সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। কোন পক্ষই থানায় লিখিত অভিযোগ করেনি বলে জানান ওসি।

শেয়ার করুন