হোম কোয়ারেন্টিনে খালেদা জিয়া

সদ্য কারামুক্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ব্যক্তিগত চিকিৎসকের পরামর্শে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বুধবার (২৫ মার্চ) সন্ধ্যায় তার বাসভবন “ফিরোজা”য় খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, “আমরা ওনার মুক্তিতে খুশি, ম্যাডামকে সে কথা জানাতে এসেছি। আল্লাহর কাছে দোয়া করছি, উনি যেন এখান থেকে উঠে দাঁড়াতে পারেন, আবার রাজনীতিতে আসতে পারেন। ওনার চিকিৎসার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা ইতোমধ্যে ওনার বাসায় গিয়েছেন। আপাতত কিছুদিনের জন্য ম্যাডামকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। ডাক্তাররা এ বিষয়ে আলোচনা করবেন। তার সঙ্গে যাতে কেউ কোনো দেখা করতে না পারি। তবে আমাদের জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা সবাই তার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন।”

রাজনীতি করলে খালেদা জিয়ার জামিন বাতিল হবে অ্যাটর্নি জেনারেল মন্তব্যের বিষয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, “সে প্রসঙ্গে আমরা যাব না। আমাদের আইনজীবীরা আছেন, তারা এ বিষয়ে কথা বলবেন।”

খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতের সময় মির্জা ফখরুল ছাড়াও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা ছয় মাস স্থগিত করে শর্তাধীন মুক্তি দেওয়া হয়েছে। বুধবার (২৫ মার্চ) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে বের হন। পরে তার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দারের গাড়িতে গুলশানের পথে রওনা হন তিনি। বিকাল সোয়া ৫টার দিকে তাকে বহন করা গাড়িটি রাজধানীর গুলশানের ৭৯ নম্বর সড়কের বাসভবন “ফিরোজা”য় প্রবেশ করে।

শেয়ার করুন