বাংলাদেশ থেকে লন্ডন প্রবাসীরা যাচ্ছেনও

সিলেটের সকাল রিপোর্ট: বিমানের লন্ডন ও ম্যানচেষ্টার রুটের ফ্লাইটে করে শুধু প্রবাসীরা আসছেন না, রীতিমতো যাচ্ছেনও। ব্যারিস্টার আনোয়ার হোসেন নামের একজন যাত্রী জানান, শুক্রবারও ঢাকা-লন্ডন ফ্লাইট যাত্রী ভর্তি ছিল। বিজনেস ক্লাসের ৩০টি সিটই ছিল বুকড। তবে, বিমানবন্দরে ছিল সুনসান নিরবতা। নেই আগের ব্যস্ততা। ইমিগ্রেশনের দুটি ডেস্কে কেবল দুজন কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করছেন বলে জানান তিনি।
বিমানের এ দুটি ফ্লাইট মূলত সিলেট-ঢাকা হয়ে হিথ্রো বিমানবন্দর এবং সিলেট-ঢাকা হয়ে ম্যানচেষ্টারে যেতো। আর ওই দুটি স্থান থেকে ফ্লাইট দুটি সরাসরি সিলেটে চলে আসতো। পরে ঢাকায় ট্রানজিট দিয়ে লন্ডনে যেতো। কিন্তু, করোনাভাইরাসজনিত পরিবর্তিত পরিস্থিতির কারণে গত ২৫ মার্চ থেকে ফ্লাইট দুটি ঢাকা হযরত শাহজালাল(র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে চলাচল করছে। আর ছোট বিমানে করে সিলেট-ঢাকা রুটে যাত্রীদের আনা নেয়া করা হচ্ছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সিলেট ডিস্ট্রিক ম্যানেজার শাহনেওয়াজ মজুমদার এ তথ্য জানিয়েছেন।
অবশ্য, এ দুটি ফ্লাইট বন্ধের দাবি তুলেছিলেন সিলেটের নাগরিক সমাজ। এ অবস্থায় ১ এপ্রিল থেকে এ রুটে এক সপ্তাহের জন্য ফ্লাইট বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়েছে বিমানের পক্ষ থেকে।

শেয়ার করুন