পবিত্র শবে মেরাজ আজ

সিলেটের সকাল ডেস্ক: আজ পবিত্র লাইলাতুল মেরাজ। ২২’শে মার্চ (২৬’শে রজব) রোববার দিবাগত রাতে থেকে পালিত হচ্ছে পবিত্র লাইলাতুল মেরাজ। ১৪৪১ হিজরির রজব মাসের গণনা শুরু।

পবিত্র শবে মেরাজে মহানবী হজরত মুহাম্মাদ (সা.) মহান আল্লাহ রাব্বুল আল-আমীনের সান্নিধ্য লাভ করেছিলেন। নবুয়তের একাদশ বছরে হিজরী ৬২০ খ্রিষ্টাব্দে রজব মাসের ২৬ তারিখ রাতে পবিত্র কাবা শরীফ হয়ে বায়তুল মুকাদ্দাসে যান মহানবী (সা.)। সেখানে সকল নবীর জামাতে ইমামতি করেন তিনি। পরে মহানবী (সা.) বায়তুল মুকাদ্দাস থেকে উর্ধ্বাকাশে গমন করেন। সেখানেই মহান রাব্বুল আল-আমীনের দিদার লাভ করেন এবং জান্নাত জাহান্নাম ঘুরে দেখেন আল্লাহর পিয়ারা হাবিব (সা.)।

আল্লাহর রসুল (সা.) এই মেরাজ থেকে উম্মতে মোহাম্মদীর জন্য পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের হুকুম নিয়ে পৃথিবীতে ফিরে আসেন। মেরাজের সময়ে মহানবী (সা.) সৃষ্টি জগতের সবকিছুর রহস্য অবলোকন করেন। আরবি ভাষায় মেরাজ অর্থ হচ্ছে সিঁড়ি। আর ফার্সি ভাষায় এর অর্থ ঊর্ধ্ব জগতে আরোহণ।প্রিয়নবী (সা.)-এর ঊর্ধ্বাকাশ ভ্রমণ ও মহান প্রভু আল্লাহতায়ালার দিদার লাভের পবিত্র এই দিনটিকে মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরাও যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেন। এদিন রাতে মসজিদ, মাদ্রাসা, খানকা ও ধর্মীয় সংগঠনে আলোচনা সভা, ওয়াজ মাহফিল, মিলাদ, দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। মুসুল্লিরা ব্যক্তিগতভাবে নফল নামাজ, পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত, জিকির-আজকার, কবর জিয়ারত প্রভৃতি নফল ইবাদতের মাধ্যমে মেরাজ রজনি পালন করেন। এ উপলক্ষে অনেকে আজ নফল রোজাও রাখেন।

আরবি শব্দ ‘লাইলাতুল’ অর্থ রাত, আর ‘মেরাজ’ অর্থ ঊর্ধ্বগমন। মুসলমানদের ধর্ম বিশ্বাস অনুযায়ী, ২৬ রজব দিবাগত রাতে ঊর্ধ্বাকাশে ভ্রমণ করে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.) আল্লাহ তায়ালার সাক্ষাৎ লাভ করেছিলেন। এ বছর সেই রাতটি পড়েছে আগামী ২২ মার্চ।

লাইলাতুল মেরাজ মুসলমানদের কাছে বিশেষ মর্যাদার। ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা নফল ইবাদত বন্দেগির মধ্য দিয়ে এই মূল্যবান রাত কাটান। অনেকে নফল রোজাও রাখেন এ দিন।
সরকারি ছুটি না হলেও মেরাজের মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের জন্য দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো আজ ঐচ্ছিক ছুটি পালন করছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে ‘লাইলাতুল মেরাজের গুরুত্ব ও তাৎপর্য’ শীর্ষক ওয়াজ ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন