সিলেটে পুলিশের টিআরসি’দের সমাপনী কুচকাওয়াজ

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥ বাংলাদেশ পুলিশের ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সিলেটের লালাবাজারে পিটিসি নোয়াখালীর সংযুক্ত ট্রেনিং সেন্টারে ৬ষ্ঠ ব্যাচের ময়মনসিংহ জেলার ২০৩ জন ও বান্দরবান জেলার ৪৬ জনসহ সর্বমোট ২৪৯ জন টিআরসি এ কুচকাওয়াজে অংশ নেন।

টিআরসিদের কুচকাওয়াজটি অত্যন্ত সুশৃঙ্খল ও নান্দনিক ভাবে সম্পন্ন হয় যা আগত অতিথিবৃন্দকে মুগ্ধ করে। টিআরসিগণ দীর্ঘ ০৬ মাসের কঠোর মৌলিক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করে বাংলাদেশ পুলিশে নিয়মিত সদস্য হিসেবে অন্তর্ভূক্ত হবেন।

উক্ত কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথি হিসেবে সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি জনাব মোঃ কামরুল আহসান, বিপিএম উপস্থিত থেকে অভিবাদন গ্রহণ ও প্যারেড পরিদর্শন করেন। প্যারেড অনুষ্ঠানে টিআরসিদের উদ্দেশ্যে প্রদত্ত ভাষণে তিনি টিআরসিদের মনোমুগ্ধকর কুচকাওয়াজের প্রশংসা করেন।

তিনি তার ভাষণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদাত্ত আহবানে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধের সূচনালগ্নে ২৫ মার্চের ভয়াল কাল রাতে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে সর্ব প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ গড়ে তোলাবীর পুলিশ সদস্যদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।

তিনি তাঁর ভাষণে পুলিশের অনলাইন ভিত্তিক সেবা প্রদানের পাশাপাশি “৯৯৯” সার্ভিস এর মাধ্যমে বিনা টোলে বাংলাদেশের যে কোন প্রান্ত থেকে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও এম্বুলেন্সের মত জরুরী সেবা গ্রহণের বিষয়টি অবহিত করেন।

আরআরএফ কমান্ড্যান্ট মোঃ মাহমুদুর রহমান, পিপিএম এর সার্বিক দিকনির্দেশনায় ০৬ মাস ব্যাপী টিআরসিদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়। সমাপনী কুচকাওয়াজে অধিনায়ক ছিলেন পুলিশ পরিদর্শক মোঃ বাহার উদ্দিন, আরআরএফ সিলেট এবং সহ অধিনায়ক ছিলেন এসআই(সশস্ত্র) মোঃ মিজানুর রহমান।

প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে টিআরসি/৮৯ মোঃ সাখাওয়াত হাসান সাকিব সকল বিষয়ে (আইন, প্যারেড, পিটি ও ফায়ারিং) শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকরেন। এছাড়া আইন বিষয়ে টিআরসি/৯২ নাছির আহম্মেদ তরফদার, প্যারেডে টিআরসি/০৬ অপু মার্মা, পিটিতে টিআরসি/২৫ মাহমুদুল হাসান, ফায়ারিং এ টিআরসি/২৬ মিজানুর রহমান ১ম স্থান অর্জন করেন। শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারী টিআরসিদের প্রধান অতিথি ট্রফি বিতরণ করেন।

আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দের মধ্যে এসএমপি, সিলেটের পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া বিপিএম, সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র বিপিএম, এসএমপি, সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার পরিতোষ ঘোষ, মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার), সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান বিপিএম, সিলেটের পুলিশ সুপার মোঃ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম-সেবা, হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা বিপিএম, পিপিএম, পুলিশ সুপার রেঞ্জ কার্যালয় নূরুল ইসলাম, এনএসআই, সিলেট এর যুগ্ম পরিচালক মোঃ সরোয়ার হোসেন, এসএমপি এর উপ-পুলিশ কমিশনারবৃন্দ, এসএমপি, সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাবেদুর রহমান, এসএমপি, সিলেটের পুলিশ সুপার (মিডিয়া এন্ড কমিউনিটিসার্ভিস) জেদান আল মুসা, কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, সিলেট কমিশনার মোহাম্মদ শফিউর রহমান, র‌্যাব-৯ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মনিরুল ইসলাম, সিলেট রেঞ্জ ও এসএমপির অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তাবৃন্দ, সম্মানিত প্রিন্ট ও ইলেকট্রিনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, স্থানীয় জন প্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ লালাবাজার এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন