‘বৃটেনের নির্বাচনে লেবার পার্টি জয়ী হলে বাংলাদেশীদের জন্য অনেক সুযোগ আসবে’

সিলেটের সকাল ডেস্ক ॥ ‘বৃটেনের আগামী নির্বাচনে লেবার পার্টি জয়ী হবার সম্ভাবনা প্রবল। যদি সেটি হয়ে যায় তাহলে সেখানে বাংলাদেশীদের জন্য অনেক সুযোগ অপেক্ষা করছে।’- এমন মন্তব্য করেছেন লেবার ফ্রেন্ড্স অব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মিঃ হাওয়ার্ড ডাওবার। ভবিষ্যতে তারা বাংলাদেশ থেকে দক্ষ কর্মী, শেফ ও অন্যান্য পেশায় লোক নেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলেও জানান তিনি।

শনিবার সন্ধ্যায় সিলেট চেম্বার কার্যালয়ে যুক্তরাজ্য থেকে আগত লেবার ফ্রেন্ড্স অব বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলের সাথে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। এসময় তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের অর্থনীতি খুব দ্রুত উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে। সেই সাথে নতুন নতুন বিনিয়োগের ক্ষেত্র সৃষ্টি হয়েছে। আমরা মনে করি বাংলাদেশ একদিন বিশ্বের অন্যতম ধনী দেশে পরিণত হবে।’

তিনি বলেন, ‘লেবার ফ্রেন্ড্স অব বাংলাদেশ দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নে সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছে। তারা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করতে বৃটেনে বসবাসরত বাংলাদেশীদের সাথে যোগাযোগ রক্ষাক্রমে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি সিলেটে বিদেশী বিনিয়োগ বৃদ্ধির ব্যাপারে তার পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।’

সভাপতির বক্তব্যে চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আবু তাহের মোঃ শোয়েব বলেন, ‘বৃটেন বাংলাদেশের উন্নয়ন অংশীদার রাষ্ট্র। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বৃটেনের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে। ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে সিলেট অত্যন্ত সম্ভাবনাময় একটি অঞ্চল। এছাড়াও প্রবাসী আধিক্যের কারণে সিলেট সরকারের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য সিলেটের শিল্প, পর্যটন, শিক্ষা ও আইটি খাতে বিনিয়োগের জন্য বৃটেনের বিনিয়োগকারীদের আহবান জানান। একই সাথে বাংলাদেশীদের জন্য বৃটিশ ভিসা প্রাপ্তি সহজীকরণের দাবীও জানান তিনি।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন লেবার ফ্রেন্ড্স অব বাংলাদেশের জেনারেল সেক্রেটারি সৈয়দ আবুল বাশার, প্রতিনিধিদলের সদস্য কমান্ডার (অব:) জন ম্যাককেই, সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি চন্দন সাহা, পরিচালক মোঃ এমদাদ হোসেন, পিন্টু চক্রবর্তী, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, মোঃ আতিক হোসেন, মোঃ নজরুল ইসলাম, আলীমুল এহছান চৌধুরী, সচিব গোলাম আক্তার ফারুক, যুগ্ম সচিব নূরানী জাহান কলি, সহকারী সচিব সানু উদ্দিন রুবেল প্রমুখ।

শেয়ার করুন