জৈন্তাপুরে পুলিশের অভিযানে অস্ত্রসহ ৫ ডাকাত আটক

জৈন্তাপুরে ডাকাতির ঘটনায় ৫ ডাকাতকে আটক করেছে পুলিশ। । তারা হচ্ছে উপজেলার রুপচেং গ্রামের জজ মিয়ার পুত্র আব্দুল হাকিম কিবরিয়া,  একই গ্রামের মৃত সামছুল হকের পুত্র মোঃ রাসেল, ফজলুল হকের পুত্র আমিনুল ইসলাম, রুস্তম আলীর পুত্র মোঃ মোশাররফ ও সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর থানার স্বজনশ্রী গ্রামের মৃত আব্দুল কাইয়ুমের পুত্র ফজলু মিয়া।

পুলিশ জানায়,সিলেট জেলার অর্ন্তগত জৈন্তাপুর মডেল থানাধীন পূর্ব লক্ষীপাশা সাকিনের হোমিও চিকিৎসক বশির আহমদ এর বাড়ীর বসতঘরে গত বৃহস্পতিবার রাত ০২.৩০ হতে ০৪.০০ টার মধ্যে যে কোন সময় একদল সশস্ত্র ডাকাত প্রবেশ করে মূল্যমান জিনিসপত্র লুটে নিয়ে যায়। ঘটনার সংবাদ পাওয়া মাত্র সিলেট জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন, পিপিএম অফিসার ইনচার্জের নেতৃত্বে থানার চৌকশ পুলিশ সদস্যদের সমন্বয়ে একটি টিম গঠন করে অভিযান পরিচালনার নির্দেশ প্রদান করেন। এরই প্রেক্ষিতে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যামল বণিক সঙ্গীয় অফিসার-ফোর্সসহ বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় ০১নং নিজপাট ইউনিয়নের অন্তর্গত রূপচেং গ্রামে আব্দুল হাকিমের বসতঘরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে  তাদের আটক করে। এ সময় তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের অভিযান পরিচালনাকারি দল ডাকাতদের নিকট হতে ০১ টি দেশীয় লোহার তৈরি ওয়ান স্যুটার পাইপগান ও ০১ রাউন্ড কার্তুজ ও ডাকাতিকালে লুন্ঠিত বিশ হাজার টাকাসহ আটক করেন। ডাকাতির ঘটনা সংক্রান্তে বশির আহমদের পুত্র মোঃ নাসির আহমদ পাবেল এর দাখিলকৃত এজাহারের ভিত্তিতে জৈন্তাপুর থানার মামলা নং-১৪ তারিখ-২১-০২-২০২০খ্রি: ধারা -৩৯৫/৩৯৭/৪১২ দন্ডবিধি রুজু করা হয়। অপরদিকে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় জৈন্তাপুর মডেল থানার এসআই(নিঃ) মোঃ আজিজুর রহমান এর দাখিলকৃত এজাহারের ভিত্তিতে পৃথক অস্ত্র মামলা রুজু করা হয়।

 

শেয়ার করুন