সিলেটে সড়কে নিহত ৪

দিরাইয়ে দুর্ঘটনাকবলিত পিকআপ ভ্যান

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: কানাইঘাট, সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই এবং হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় আমেরিকা প্রবাসীসহ চারজন নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার সকাল এবং বিকেলে পৃথক এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। তবে তিনটি ঘটনার সাথে জড়িত কোনো চালককে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

কানাইঘাট : কানাইঘাটে পিকআপ গাড়ী চালাতে গিয়ে এক অদক্ষ অটোরিক্সা সিএনজি চালকের হাতে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তঃসত্ত্বা এক নারী। দুই সন্তানের জননী এই নারীর নাম সুমাইয়া বেগম (২৫)। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার বেলা ৩টার দিকে কানাইঘাট পৌরসভার শ্রীপুর গ্রামে। জানা যায়, শ্রীপুর গ্রামের অটোরিক্সা চালক শাহিদ উদ্দিনের স্ত্রী ৭ মাসের অন্ত:সত্ত্বা সুমাইয়া বেগম তার শাশুড়ীর সাথে বাড়ির পাশের ধানের খলায় চাল পরিষ্কার করছিলেন। এ সময় একই গ্রামের আব্দুল মালিক কুটির পুত্র অটোরিক্সা চালক শাহিন আহমদ (২৬) খোলা মাঠে পিকআপ চালাতে গিয়ে এক পর্যায়ে সুমাইয়া বেগমকে ধাক্কা দেয়। স্থানীয় লোকজন তাকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত সুমাইয়া বেগমের স্বামী শাহিদ উদ্দিনসহ এলাকার লোকজন জানান, এটা সড়ক দুর্ঘটনা নয়। পিকআপ চালক স্থানীয় ফাটাহিজল গ্রামের আব্দুল মুছব্বিরের পুত্র রুবেল আহমদের (২৫) অদক্ষতার কারণে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। নিহত সুমাইয়া বেগমের মাহদিয়া বেগম (৭) ও জুনেদ আহমদ (৪) নামে দুই সন্তান রয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে পিকআপ চালক রুবেল আহমদ ও অটোরিক্সা চালক শাহিন আহমদ পলাতক রয়েছে। কানাইঘাট থানার এস.আই আবু কাউছারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, পিকআপ গাড়ীর মালিক ও দুই চালকের পরিচয় সনাক্ত করা হয়েছে। তাদের আটক করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

দিরাই: আমেরিকা থেকে কিছুদিন আগে দেশে এসেছেন আটাশ বছরের তরুণ মুমিন মিয়া। দেশে আসার পর গত ৮ জানুয়ারী তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তারপর আবার আমেরিকা ফিরে যাবার কথা থাকলে নিয়তি তাকে যেতে দেয়নি। পিকআপ ভ্যানের চাপায় তিনি প্রাণ হারিয়েছেন। এ সময় তার সাথে থাকা তারেশ দাস (৩০) নামে আরেকজনেরও মৃত্যু হয়। আহত হন অপর এক জন। গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সুনামগঞ্জের দিরাই-মদনপুর সড়কের সুজানগর নামক স্থানে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। জানা যায়, দিরাই থেকে ছেড়ে যাওয়া একটি পিকআপ ভ্যান (ঢাকা মেট্রো-ঠ-১৫-১৩৩০) বিপরীত দিক থেকে আসা মোটর সাইকেলকে চাপা দেয়। এতে মোটর সাইকেল আরোহী তিনজনই গুরুতর আহত হন। পরে আহত অবস্থায় তাদেরকে দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতরা হলেন, করিমপুর ইউনিয়নের নাগেরগাঁও গ্রামের মৃত মিয়াধন উল্লার ছেলে আমেরিকা প্রবাসী নব বিবাহিত মুমিন মিয়া (২৮) ও একই গ্রামের ধরণী দাসের ছেলে তারেশ দাস (৩০)। গুরুতর আহত অবস্থায় মোটর সাইকেল আরোহী বদলপুর গ্রামের মুকুল মিয়াকে (২৭) সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম নজরুল জানান, পিকআপ ভ্যানের চালক গাড়ী রেখে পালিয়ে গেছে।

মাধবপুর: ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের মাধবপুরে বাস চাপায় জানে আলম (৩০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে মহাসড়কের দরগাহ গেইট এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত জানে আলম লাখাই উপজেলার বুলা গ্রামের কাছম আলীর পুত্র। খবর পেয়ে শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, জানে আলম নামে ওই যুবক রাস্তা পারাপারের সময় সিলেট থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি ইউনিক পরিবহনের চাপায় পৃষ্ট হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ হয়েছে। ওসি আরো জানান, ময়না তদন্ত শেষে মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে ইউনিক গাড়িটিকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

শেয়ার করুন