মৌলভীবাজারে গণধর্ষণের শিকার দুই বান্ধবী, আটক ৩

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারে কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন দুই বান্ধবী। তারা মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা যায়, মঙ্গলবার বিকেলের দিকে কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবের সামনে থেকে একটি সিএনজি অটোরিকশায় ওঠেন কলেজছাত্রী (১৮) ও তার বান্ধবী (২০)। কিছুক্ষণ পর যাত্রীবেশে চারজন তাদের সিএনজিতে উঠে চালককে সিএনজি ঘুরিয়ে নিতে নির্দেশ দেয়। চালক তাদের কথামতো গাড়ি নিয়ে চলে। ওই চারজন গাড়ির পর্দা টেনে দুই বান্ধবীর হাত ও মুখ বেঁধে স্টেডিয়াম এলাকার পেছনে একটি ঝোঁপে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের মারধর করে মোবাইল, বই ও টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে তারা কৌশলে সেখান থেকে বেরিয়ে এসে পুলিশকে জানালে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়।

এ বিষয়ে কলেজছাত্রী বাদী হয়ে পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার ১১ নম্বর মোস্তফাপুর ইউনিয়নের উত্তর জগন্নাথপুর গ্রামের ইসলাম মিয়ার ছেলে মুন্না এবং আরও দুইজকে গ্রেফতার করেছে।

মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমঙ্গীর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে কলেজছাত্রী বাদী হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে থানায় একটি মামলা করেছেন। তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন