বাংলাদেশকে ভয় পাচ্ছে পাকিস্তান : রমিজ রাজা

স্পোর্টস ডেস্ক : জঙ্গি আক্রান্ত দেশটিতে টেস্ট খেলব না- প্রায় দেড়মাস বিসিবি এমন মনোভাব প্রকাশ করলেও দুবাইয়ে পিসিবির সঙ্গে সভার পর সব যেন ভোজবাজির মতো পাল্টে যায়! নিমেষের মধ্যে সূচি প্রকাশিত হয়। ১৫ সদস্যের দলও ঘোষণা করে দিয়েছে পিসিবি। তবে এই দল ঘোষণার পর সমালোচনাই বেশি শুনতে হচ্ছে পাকিস্তানের নির্বাচক কমিটিকে। এবার সমালোচনায় যোগ দিয়েছেন দেশটির সাবেক ক্রিকেটার এবং খ্যাতিমান ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা। তার মতে, বাংলাদেশের বিপক্ষে হারের ভয়েই নাকি দল গঠন করেছেন নির্বাচকেরা!

পিসিবির ঘোষিত টি-টোয়েন্টি দলে ফেরানো হয়েছে দুই বর্ষীয়ান অল-রাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ এবং শোয়েব মালিককে। ৩৯ বছর বয়সী মোহাম্মদ হাফিজ ১৪ মাস পর পাকিস্তান দলে ফিরেছেন। আর ৩৭ বছর বয়সী শোয়েব মালিক গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে সর্বশেষ জাতীয় দলে খেলেছেন। মূলত এ দুজনকে দলে ফেরানোর কারণেই সমালোচিত হচ্ছেন পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ ও নির্বাচক মিসবাহ-উল-হক। রমিজ তো বলেই দিয়েছেন, বাংলাদেশকে ভয় করার কারণে ভবিষ্যতের দিকে না তাকিয়ে এই বুড়োদের দলে নেওয়া হয়েছে।

ইউটিব চ্যানেলে রমিজ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘বাংলাদেশ সিরিজে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি দলটা দেখার পর থেকেই মেজাজ খুব খারাপ। ভবিষ্যতে তাকিয়ে দল নির্বাচন করা হয়নি। নির্বাচকেরা বুঝিয়ে দিয়েছেন তারা আর হার দেখতে চান না। এ কারণে তারা শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ হাফিজকে দলে ফিরিয়েছেন, যারা নিজের সেরা সময়টা ফেলে এসেছে। হারের ভয়ে দূরদর্শী ভাবনা বাদ দিয়ে স্বার্থপরের মতো চিন্তা করলে পাকিস্তান ক্রিকেট কত দূর যেতে পারবে?’

বাংলাদেশ যেখনে টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ের নবম স্থানে আছে, সেখানে পাকিস্তান আছে শীর্ষে। কিন্তু পাকিস্তানের সাম্প্রতিক পারফর্মেন্স সুবিধার নয়। গত বছর ১০ ম্যাচ খেলে ৮টিতেই হেরেছে তারা। বিষয়টি মনে করিয়ে দিয়ে রমিজ বলেন, ‘নির্বাচকদের যুক্তি, ৩৮ বছর বয়সী দুই ক্রিকেটার অভিজ্ঞতা থেকে ম্যাচ জেতাবেন। তাহলে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কঠিন সিরিজে তরুণদের বদলে তাদের সুযোগ দেওয়া উচিত ছিল। বাংলাদেশের বিপক্ষে তারা হারের ভয় করছে বলেই নিরাপদ পথ বেছে নিয়েছে। মালিক কিংবা হাফিজের সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত কোনো দ্বন্দ্ব নেই। পাকিস্তানের জন্য তাদের অনেক অবদান রয়েছে। কিন্তু এই বয়সে বেশি কিছু আশা করা ভুল।’

শেয়ার করুন