জরুরী অবতরণের আগে স্কুলের ওপর তেল ফেললো বিমান!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রে যাত্রীবাহী একটি বিমান লস অ্যাঞ্জেলস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জরুরী অবতরণ করার আগে তেল ফেলে দিলে সেই তেল বেশ কয়েকটি স্কুলের ওপর পড়েছে। আর ফেলে দেওয়া তেলে কমপক্ষে ৬০ জন অসুস্থ হয়ে পড়ে, যাদের অনেকেই ছাত্র-ছাত্রী। ওই তেলের সংস্পর্শে তাদের ত্বকে চুলকানি ও শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। পরে তাদেরকে চিকিৎসাও দেওয়া হয়েছে। তবে তাদের কারো অবস্থা গুরুতর নয়।

বিবিসি বাংলার খবরে বলা হয়, ডেল্টা এয়ারলাইন্সের বিমানটির ইঞ্জিনে সমস্যা দেখা দিলে সেটি বিমানবন্দরে ফিরে আসছিল। অবতরণের সময় বিমানের ওজন কমাতে বিমানটি থেকে তেল ফেলে দেওয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে, এই তেল পড়েছে কমপক্ষে ছ’টি স্কুলের ওপর। এরকম একটি স্কুল পার্ক এলিমেন্টারি স্কুল যা বিমানবন্দর থেকে ১৬ মাইল দূরে। বিমান থেকে তেল ফেলার সময় ওই স্কুলের দুটো ক্লাসের শিশুরা স্কুলের বাইরে ছিল।

এতো ছোট ছোট শিশুদের ওপর বিমানের তেল পড়ার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় শহরের মেয়র এলিজাবেথ এলসান্তার। যুক্তরাষ্ট্রে কেন্দ্রীয় বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের একজন মুখপাত্র অ্যালেন কেনিতজার বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, “এই ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তেল ফেলার ক্ষেত্রে বিশেষ কিছু নিয়ম আছে।”

“এসব নিয়মে বলা আছে এমন নির্ধারিত জায়গায় তেল ফেলতে হবে যেখানে লোকজন নেই, এবং ফেলতে হবে খুব উপর থেকে যাতে করে মাটিতে পড়ার আগেই তেল ছড়িয়ে পড়তে পারে।”

সাধারণত জরুরী অবতরণের আগে দুর্ঘটনা এড়াতে বিমান থেকে কিছু তেল ফেলে দেওয়া হয়। তবে বিমান চলাচল সংক্রান্ত আইনে বলা আছে, এই তেল ফেলা যাবে শুধুমাত্র নির্ধারিত কিছু স্থানে এবং আকাশের অনেক উপর থেকে। বিমানের পাখার ভাল্বের সাহায্যে নির্দিষ্ট পরিমাণে কিছু তেল পাম্প করে বাইরে ফেলে দেওয়া হয়।

শেয়ার করুন