‘জনগণের দোরগোড়ায় পুলিশি সেবা নিয়ে যাবার জন্য চেষ্টা করছি‘

বিশ্বনাথ থানায় সম্প্রসারিত বিট পুলিশিং সভা

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি ॥ বাংলাদেশ পুলিশ সিলেট রেঞ্জ’র ডিআইজি মো. কামরুল আহসান বিপিএম-(বার) বলেছেন, ‘পুলিশি জনতা, জনতাই পুলিশ’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে জনগণের দোরগোড়ায় পুলিশি সেবা নিয়ে যাবার জন্য চেষ্টা করছি। তিনি বলেন, শুধু আইনের মধ্যে থাকলে হবে না। আমরা সরকারের কিছু কাজকে এগিয়ে নিতে নিজে দায়িত্ববান হতে হবে। কমিউনিটি পুলিশ, ওপেন হাউজ ডে, প্রবাসী হেল্প ডেক্স, নারী ও শিশু ডেস্ক এর মাধ্যমে মানুষকে জরুরী সেবা দিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। ১৮৬১ সালের আইনে এখনও চলছে পুলিশ। সেই আইনের পরিবর্তন হচ্ছেনা। ডিজিটাল যুগে মানুষকে দ্রুত সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার বিশ্বনাথ থানা কম্পাউন্ডে আয়োজিত মাদক, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য সম্প্রসারিত বিট পুলিশিং সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সভাপতির বক্তব্যে সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম বলেন, ‘আজকের পুলিশ ১৯৭১ সালে প্রথম প্রতিরোধকারী পুলিশ বাহিনীর সদস্য। আজকের পুলিশ বাহিনী এদেশের মানুষের কথা বলেন, নির্যাতিত অসহায় মানুষের পক্ষে কথা বলে। মানুষকে সেবা দেওয়ার জন্য আমরা অঙ্গিকারবদ্ধ। মুজিববর্ষকে আমরা সেবা বর্ষ হিসেবে বুকে ধারণ করি, লালন করি এবং বাস্তাবে প্রয়োগ করার জন্য আমরা শ্লোগান দিয়েছি ‘মুজিববর্ষের অঙ্গিকার, পুলিশ হবে জনতার’।’

তিনি বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে এ দেশকে বঙ্গবন্ধু যেভাবে অসম্প্রদায়িক, শোষনমুক্ত এবং উন্নত বাংলাদেশ গড়ার জন্য যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সেই উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশের যেতে চাই।’

বিশ্বনাথ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রমা প্রসাদ চক্রবর্তীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সিলেটের সহকারী পুলিশ সুপার (পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার) ইমাম মোহাম্মদ শাদিদ, বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস. এম. নুনু মিয়া, সহকারী পুলিশ সুপার (ওসমানীনগর সার্কেল) সাইফুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. কামরুজ্জামান।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন- বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. শামীম মূসা, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ছয়ফুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদ, যুগ্ম সম্পাদক আমির আলী চেয়ারম্যান, রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর। সভার শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন ছোটন মিয়া ও গীতাপাঠ করেন দেবব্রত বক্রবর্তী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ওয়াহিদ আলী, উত্তর বিশ্বনাথ আমজদ উল্লাহ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ নেছার আহমদ, হাজী মফিজ আলী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ নেহারুন নেছা।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন- বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন, বিশ্বনাথ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাইফুল ইসলাম বেগ, সাংবাদিক মোসাদ্দিক হোসেন সাজুল, লামাকাজী রাগীব-রাবেয়া স্কুল এন্ড কলেজ গভর্ণিং বডির সভাপতি শাহনুর হোসাইন, বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা আহসান হাবিব নোয়াব আলী, তফজ্জুল আলী, উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সমরেন্দ্র বৈদ্য সমর, উপজেলা জাতীয় পাটির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক জয়নাল আবেদীন, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আশিক আলী, বিশ্বনাথ নতুন বাজার বণিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি শামীম আহমদ, পুরান বাজার বণিক কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আহমদ মিয়া, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য সিতার মিয়া, যুবলীগ নেতা জহুর আলী মেম্বার, রুহেল খান, দলিল লেখক ফারুক মিয়া, শ্রমিক নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আতিকুর রহমান আতিক, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শীতল বৈদ্য, সহ সভাপতি পার্থ সারথি দাস পাপ্পু, সংগঠক মো. ফজল খান।

এছাড়া অনুষ্ঠানে ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ’সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন