মানবাধিকার লঙ্গনের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসের আলোচনায় বক্তারা মানবাধিকার লঙ্গনের বিরদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। কারণ দেশে এখনও মানবাধিকার লঙ্গনের মত ঘটনা ঘটছে। এ থেকে রেহাই পেতে সরকার সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্বাধীনভাবে চলতে দিতে হবে। তাহলে দেশে অনেকটা মানবাধিকার লঙ্গনের ঘটনা কমে আসবে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে মানবাধিকার সংগঠন অধিকার সিলেটের উদ্যোগে মঙ্গলবার সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে র‌্যালী পরবর্তী সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।

মানবাধিকার সংগঠন অধিকার সিলেটের কো-অর্ডিনেটর সাংবাদিক মো. মুহিবুর রহমানের সভাপতিত্বে র‌্যালী পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সাবেক সহ সভাপতি হুমায়ুর রশীদ চৌধুরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, সহ সভাপতি এম.এ হান্নান, মুক্তিযোদ্ধা আফতাব আলী, সিনিয়র সাংবাদিক আমিরুল ইসলাম চৌধুরী এহিয়া, সাংবাদিক কাউসার চৌধুরী, নূর আহমদ, মানবাধিকার কর্মী মোহাম্মদ শাহ আলম, মোঃ সাইফ উদ্দিন, তালুকদার আনোয়ারুল পারভেজ, কয়েছ আহমদ সাগর, মাধবচন্দ্র দাস, জসিম উদ্দিন, এইচ.এম শহিদুল ইসলাম, নাসির উদ্দিন, মোঃ তাজুদ আলী, মামুন আহমদ, রহিম উদ্দিন, কামাল উদ্দিন প্রমুখ।

সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গন থেকে র‌্যালী বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আবার শহীদ মিনারের সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সিনিয়র সাংবাদিক ইকবাল সিদ্দিকী বলেন, মানবাধিকার রক্ষায় সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। সীমান্ত এলাকায় নির্যাতনসহ বিভিন্ন মানবাধিকার লঙ্গনের বিরুদ্ধে কাজ করতে হবে।

সাংবাদিক হুমায়ুন রশীদ চৌধুরী বলেন, সকল প্রকার অন্যায় অবিচারের অবসান না ঘটলে জনগণকে নানা সমস্যায় পড়তে হবে। তাই রাষ্ট্রকে এ বিষয়ে এগিয়ে আসতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে সাংবাদিক মো. মুহিবুর রহমান বলেন, ২০১৮ সালে বাংলাদেশ জাতিসংঘের মানাবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচিত হয়েছে। সরকার সে সময় যেসব অঙ্গিকার ও প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা সঠিকভাবে পালন করতে পারছেন না। তাই সরকার মানবাধিকার রক্ষায় আরো কার্যকর ভূমিকা রাখতে হবে।

শেয়ার করুন