বৃহত্তর শাহী ঈদগাহ-হাজারীবাগ এলাকাবাসীকে নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদ

সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: বৃহত্তর শাহী ঈদগাহ ও হাজারীবাগ এলাকার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অপপ্রচার’ চালানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। ছিনতাই করতে গিয়ে গ্রেফতার হওয়ার ঘটনাটিকেই ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার উদ্দেশ্যে আব্দুল কাদির রণির স্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে এমন অপপ্রচার করেছেন বলেও উল্লেখ করেন তারা।

বুধবার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তারা প্রকৃত ঘটনা তুলে ধরেন। তাদের দাবি, সম্প্রতি শাহী ঈদগাহ হোসনাবাদ আবাসিক এলাকার বাসিন্দা দাবীদার আব্দুল কাদির রণির পরিবারের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করে যেসব তথ্য প্রদান করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। মূলত সমাজবিরোধী কর্মকান্ডে সম্পৃক্ততার কারণেই ওই পরিবারকে এলাকা থেকে বিতাড়িত করা হয়। তারা এলাকায়ও থাকেনা এজন্য তাদের সাথে এলাকার কারও বিরোধ থাকার কথাও নয়।

এলাকাবাসীর পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন হাজারীবাগ জামে মসজিদ ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ফজলুল হক। এতে তিনি বলেন, ‘সংবাদ সম্মেলন করে আঁখি বেগম যে সব তথ্য উপস্থাপন করেছে, তা মিথ্যা ও বানোয়াট। তারা আমাদের এলাকায় থাকেনা বা তাদের সাথে এলাকার কারো বিরোধ থাকার কথাও নয়। মূলত তার স্বামী কুখ্যাত সন্ত্রাসী রণিকে রক্ষা করতেই এমন অপপ্রচার করেছে তারা।’

তারা আরও বলেন, রণির বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। এসব মামলায় গ্রেফতার দেখানোর জন্য পুলিশ বিজ্ঞ আদালতে আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত ওই মামলাগুলোতে তাকে গ্রেফতার দেখানোর আদেশ দিয়েছেন। বর্তমানে রণি জেল হাজতে আছে। তবে এসব মামলায় জামিন পেতেই তার স্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করেছেন বলে দাবি তাদের।

একই সাথে রণির স্ত্রী আঁখি বেগমের দায়ের করা মামলার ঘটনার সাথে আমিনুর রহমান পাপ্পু বা তার পরিবার বা এলাকার কোন লোকজনের কোনরূপ সম্পৃক্ততা নাই। এজন্য এলাকাবাসী অবিলম্বে সুষ্টু তদন্ত সাপেক্ষে এই মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পুলিশ প্রশাসনের বিনীত অনুরোধও জানান।

সংবাদ সম্মেলনে এলাকার মুরুব্বী মোহাম্মদ আলতাফ মিয়া, মোঃ আব্দুন নূর, ফজলুল হক, রেদোয়ান আহমদ, আব্দুল হান্নান শাহাদত, ফারুক আহমদ, আলমগীর মিয়া, শাহজাহান মিয়া, আব্দুল মুকিত, আনোয়ার হোসেন রাজু, গুলজার হোসেন, ইরফান আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন