বিছনাকান্দির উন্নয়নে ৪ কোটি টাকার প্রকল্প ॥ জেলা প্রশাসক

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥ সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম জানিয়েছেন, পর্যটন খাতের উন্নয়নে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। বিছনাকান্দির উন্নয়নের জন্য ৪ কোটি টাকার প্রকল্প এসেছে। ১২৯ একর জমি নিয়ে গোয়াইনঘাটে নতুন একটি স্টোন ক্রাশিং জোনও গড়ে তোলা হচ্ছে ।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র নেতৃবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় জেলা প্রশাসক এসব কথা বলেন। সভা চেম্বার কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন চেম্বার সভাপতি আবু তাহের মোঃ শোয়েব।
সভায় জেলা প্রশাসক আরো বলেন, ব্যবসায়ীরা দেশের অর্থনীতির চালিকা শক্তি। তাই ব্যবসায়ীদের সমস্যাবলী নিরসনে আমাদেরকে সচেষ্ট থাকতে হবে। কম্পিউটারাইজ্ড ট্রেড লাইসেন্স চালুর লক্ষ্যে ইতোমধ্যে সিলেট জেলার সকল পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। শিগগিরই তা চালু হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সিলেটের ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নয়ন ও ব্যবসায়ীদের সমস্যাবলী নিরসনে সিলেট চেম্বারের ভূমিকার প্রশংসাও করেন জেলা প্রশাসক।
সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের সভাপতি আবু তাহের মোঃ শোয়েব বলেন, বর্তমান সরকার সুখী সমৃদ্ধশালী ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে কাজ করছেন। সকল সেক্টরে লেগেছে প্রযুক্তির ছোঁয়া। সিলেট জেলাধীন অনেকগুলো পৌরসভায় কম্পিউটারাইজ্ড ট্রেড লাইসেন্স চালু করা হয়েছে। তিনি প্রকৃত ব্যবসায়ীদের চিহ্নিতকরণ এবং ট্রেড লাইসেন্স কার্যক্রমে স্বচ্ছতা আনয়নে সিলেটের সকল পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদে কম্পিউটারাইজ্ড ট্রেড লাইসেন্স চালুর আহ্বান জানান।
ভোলাগঞ্জ পাথর কোয়ারী থেকে পাথর পরিবহনের জন্য বাদাঘাট-এয়ারপোর্ট সড়কটি ৪ লেনে রূপান্তরিত হওয়ার আগ পর্যন্ত ট্রাক চলাচলের উপযোগী করে চালু রাখার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান তিনি। এছাড়াও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা মার্কেটে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা ও বাজার মনিটরিং এর সময় সিলেট চেম্বারের প্রতিনিধি অন্তর্ভূক্ত করার অনুরোধ জানান তিনি।
সভায় চেম্বার নেতৃবৃন্দ, হাউজিং ব্যবসায়ীদের জমি নামজারীতে বিরাজমান সমস্যা নিরসন, বিসিকের খালি প্লটগুলো নতুন উদ্যোক্তাদের বরাদ্দ প্রদান, স্থলবন্দরের লেবার হ্যান্ডলিং চার্জ হ্রাসকরণ, পরিবেশ অধিদপ্তর ও ভোক্তা অধিকার কর্তৃক ব্যবসায়ীদের হয়রানি, বন্দরবাজার-মহাজনপট্টি পয়েন্টে অবস্থিত ডিভাইডার অপসারণসহ বিভিন্ন দাবী তুলে ধরেন।
সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি চন্দন সাহা, সহ-সভাপতি তাহমিন আহমদ, মোঃ এমদাদ হোসেন, মোঃ সাহিদুর রহমান, পিন্টু চক্রবর্তী, মুশফিক জায়গীরদার, এহতেশামুল হক চৌধুরী, আব্দুর রহমান, হুমায়ুন আহমদ, মোঃ আতিক হোসেন, মোঃ নজরুল ইসলাম, আলিমুল এহছান চৌধুরী, ওয়াহিদুজ্জামান চৌধুরী প্রমুখ।

শেয়ার করুন