সিলেটে ১১শ’৩০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষের লক্ষ্যমাত্রা

ফাইল ছবি

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: সিলেটে ভুট্টা চাষের অনেক সম্ভাবনা রয়েছে। ইতোমধ্যে পরীক্ষামূলক চাষে এ অঞ্চলে ভুট্টার ভালো ফলনও পাওয়া গেছে। এ কারণে পতিত জমিতে ভুট্টা চাষ করতে কৃষকদের উৎসাহ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ। এ মৌসুমে সিলেটের ১১ শ’ ৩০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষের লক্ষ্যমাত্রাও নির্ধারণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার নগরীর ধোপাদিঘীরপারের খামারবাড়ির কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কার্যালয়ে ‘সিলেট অঞ্চলে ভূট্টার চাষ সম্প্রসারণ’-শীর্ষক কর্মশালায় এ তথ্য জানানো হয়েছে। গত মৌসুমে সিলেট অঞ্চলে ৭২৫ হেক্টর জমিতে ভুট্টার আবাদ হয়েছে। এর থেকে ৫ হাজার ৬শ’ ৪১ মেট্রিক টন ভুট্টার উৎপাদন হয়েছে বলেও জানানো হয়েছে কর্মশালায়।

কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রসারণ) সনৎ কুমার সাহা বলেন, ‘সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও কৃষিতে অনেক সফলতা রয়েছে। যেসব ফসলে লাভ রয়েছে সেসব ফসল উৎপাদনে যেতে হবে। সিলেট ও দক্ষিণাঞ্চলে ভূট্টার অনেক সম্ভাবনা রয়েছে। ভুট্টা চাষ করলে লাভ হয় এটি পরীক্ষিত। এজন্য পতিত জমি গুলোতে ভুট্টা চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করতে হবে।’

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মো. শাহজাহান এর সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন- গম ও ভূট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট এর মহাপরিচালক ড. এছরাইল হোসেন, কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট খাদিমনগর সিলেট এর অধ্যক্ষ মো. শফিকুল ইসলাম, বিএআরআই গাজীপুর এর উদ্ভিদ প্রজনন বিভাগ এর মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আমিরুজ্জামান।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য পেশ করেন অতিরিক্ত পরিচালক এর কার্যালয়ের উপপরিচালক মজুমদার মো. ইলিয়াছ, উপরিচালক সিলেট মো. সালাহ উদ্দিন, উপপরিচালক সুনামগঞ্জ মো. সফর উদ্দিন, উপপরিচালক মৌলভীবাজার কাজী লুৎফুল বারী, উপপরিচালক হবিগঞ্জ মো. তমিজ উদ্দিন, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দীপক কুমার দাস, কৃষক আব্দুল জব্বার, মো. আবুল কাশেম।

এ কর্মশালার আয়োজন করে গম ও ভূট্টার উন্নতর বীজ উৎপাদন এবং উন্নয়ন প্রকল্প (২য় পর্যায়), বারি, গাজীপুর।

শেয়ার করুন