ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় উদয়ন-তূর্ণার সংঘর্ষে নিহত ১৬

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার কসবায় ঢাকাগামী তুর্ণা নিশীথা ও সিলেটে থেকে ছেড়ে যাওয়া চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন শতাধিক।

সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার মন্দবাগ নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল কান্তি দাস।

রেলওয়ে ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকা অভিমুখী তুর্ণা নিশীথা আর সিলেট থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখী উদয়ন এক্সপ্রেস মন্দবাগ পৌঁছালে সংঘর্ষ হয়। এতে তুর্ণা নিশীথার ইঞ্জিনসহ আরো কয়েককটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে উল্টে যায়। দুমড়ে মুচড়ে যায় দুই ট্রেনের কয়েকটি বগি। উভয় ট্রেনের কমপক্ষে ১৬ যাত্রী নিহত হন। দুর্ঘটনার পর পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস, রেলওয়ে নিরাপত্তা বিভাগ এবং স্থানীয়রা উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিসের উপ সহকারী পরিচালক তানহারুল ইসলাম বলেন, ১৬ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে ১০ জনের মৃতদেহ ওখানকার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে রয়েছে। তিনজনের মৃতদেহ কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, দুইজনের ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও একজনের কুমিল্লায় রয়েছে। নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, ভোরের দিকে উদ্ধারকাজ শেষ হয়ে গেছে। এখন আর সমস্যা নেই । বেলা সোয়া এগারোটার দিকে রেল চলাচল শুরু করেছে।

এ দিকে দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মিতু মরিয়মকে প্রধান করে তিনটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ও জেলা প্রশাসন।

শেয়ার করুন