নূর হোসেন নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যে দুঃখ প্রকাশ রাঙ্গার

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: স্বৈরশাসনবিরোধী আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেনকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা। গত ১০ নভেম্বর জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে ‘গণতন্ত্র দিবসের’ আলোচনা সভায় নূর হোসনকে ‘মাদকাসক্ত’ বলে অভিহিত করেন তিনি।

এ মন্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে রাঙ্গা বলেন, ‘নূর হোসেন প্রসঙ্গে আমার কিছু বক্তব্য নিয়ে কোনো কোনো মহল, বিশেষ করে তার পরিবারের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। প্রতি বছর নূর হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকীতে বিভিন্ন সংগঠনের আলোচনা, বক্তব্য ও বিবৃতিতে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়। এমনকি তাকে অশ্রাব্য ভাষায় গালাগালিও করা হয়। এর ফলে জাতীয় পার্টির কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। সেই পরিপ্রেক্ষিতে কর্মীদের উত্তেজনার মধ্যে বক্তব্য দেওয়ার সময় অনিচ্ছাকৃতভাবে আমার মুখ থেকে নূর হোসেন সম্পর্কে কিছু অযাচিত কথা বেরিয়ে যায়, যা নূর হোসেনের পরিবারের সদস্যদের মনে আঘাত করেছে। এর জন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত ও অনুতপ্ত।’

রাঙ্গা আরও জানান, নূর হোসেনের পরিবারের প্রতি আমাদের প্রয়াত চেয়ারম্যান এরশাদও সমব্যাথী ছিলেন। অতএব, অসতর্কভাবে বলে ফেলা আমার বক্তব্যের জন্য আমি নূর হোসেনের মায়ের কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। একই সঙ্গে আমার বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। আমি আশা করি এ বিষয়ে আর কোনো ভুল বোঝাবুঝির অবকাশ থাকবে না।

নূর হোসেন বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে স্মরণীয় ব্যক্তিত্ব, যিনি ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর তৎকালীন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি লেফটেন্যান্ট জেনারেল হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের স্বৈরাচারী শাসন ব্যবস্থার বিরুদ্ধে সংগঠিত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চলাকালে পুলিশের গুলিতে নিহত হন।

শেয়ার করুন