সিলেটে ম্যানচেষ্টার ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ গড়ে তোলার তাগিদ প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রীর

বিমানের সিলেট-ম্যানচেষ্টার ফ্লাইট চালুর দাবি

বক্তব্য রাখছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ

সিলেটের সকাল রিপোর্ট:‘ম্যানচেষ্টার কামস টু সিলেট’ শীর্ষক নেটওয়ার্কিং সংবর্ধনায় বিমানের সিলেট-ম্যানচেষ্টার ফ্লাইট চালুর দাবি উঠেছে।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্রিটেনের গ্রেটার ম্যানচেস্টার এর মেয়র এনডি বার্নহাম।
ওল্ডহাম কাউন্সিলের ডেপুটি লিডার আব্দুল জব্বার এমবিই’র পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন-সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সী মার্ক গ্রুপের চিফ এক্সিকিউটিভ ইকবাল আহমদ ওবিই এবং ইউনিভার্সিটি অব ম্যানচেষ্টারের গ্লোবাল ডেভেলপম্যান্ট ইন্সটিটিউটের ডাইরেক্টর প্রফেসর ডেভিড হাম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন-মিডাস-এর ডাইরেক্টর ডেনিয়েল স্টোরার।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রবাসীরা অনবদ্য অবদান রেখে চলেছেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিতির একাংশ

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সে দেশের অর্থনীতির ভিত মজবুত ও শক্তিশালী হচ্ছে। একটি উন্নয়নশীল দেশ হিসাবে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি আশাব্যঞ্জক। তিনি বলেন, ৩০ বছর আগের বাংলাদেশ আর বর্তমানের বাংলাদেশ এক নয়। এখন আমাদের রয়েছে দক্ষ জনশক্তি। আমরা কারি এবং কেটারিং ইন্ডাস্ট্রির জন্য দক্ষ জনশক্তি প্রশিক্ষিত করে তুলছি।
দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে শিক্ষার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন তিনি। তিনি সিলেটে ম্যানচেষ্টার ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ গড়ে তুলতে প্রতিনিধি দলের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, মালয়েশিয়ায় নটিংহাম ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস গড়ে তোলা গেলে বাংলাদেশেও ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস প্রতিষ্ঠা করা যেতে পারে।
সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ পার্ক চালুর জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত । তিনি হাইটেক পার্ক ও ইকোনমিক জোনে প্রবাসীদের বিনিয়োগের আহ্বান জানান।
মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সিলেট ও ম্যানচেষ্টার সিটির মধ্যে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সাংস্কৃতিক ও অবকাঠামোগত পার্টনারশীপ গড়ে তোলার ওপর জোর দেন।
ইকবাল আহমদ ওবিই বলেন, সিলেট ও ম্যানচেষ্টার সিটির মধ্যে অনেক ক্ষেত্রে মিল রয়েছে। তিনি সিলেট-ম্যানচেষ্টার সরাসরি ফ্লাইট চালুর সুপারিশ করেন।
গ্রেটার ম্যানচেস্টার এর মেয়র এনডি বার্নহাম প্রথম বারের মতো বৃটেনের কোন নির্বাহী মেয়রের বাংলাদেশ সফরের কথা উল্লেখ করে বলেন, এ সফর ঐতিহাসিক। তিনি বলেন, দুই সিটির মধ্যে ইতিহাসগত অনেক মিল রয়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সিলেট হতে চলেছে ম্যানচেষ্টার। বৃটিশ অর্থনীতিতে প্রবাসী বাংলাদেশীদের অবদানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিলেট ও ম্যানচেষ্টার সিটি ওয়াস্ট ম্যানেজমেন্ট এবং রি সাইক্লিং নিয়ে একত্রে কাজ করতে পারে। এ লক্ষ্যে দুই সিািট কাজ করে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে-সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান, সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি কামরুল আহসান, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া, অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এমাদ উল্যাহ শহিদুল ইসলাম, সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকরামুল কবির, সাবেক সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন সেলিম, সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি চন্দন সাহা, মেয়রপত্মী শ্যামা হক চৌধুরীসহ নগরীর বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন