শায়েস্তাগঞ্জে অটোরিকশাকে ট্রেনের ধাক্কা, নিহত ১

ট্রেনের ধাক্কায় দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া অটোরিকশা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্কুলে যাওয়ার পথে অনুনমোদিত রেলক্রসিং পার হতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় ছায়েম মিয়া নামে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিশু নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আরও দুই শিক্ষার্থী ও অটোরিকশার চালক আহত হয়েছে।

রোববার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার বড়চর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ছায়েম উপজেলার নসরতপুর এলাকার সেলিম মিয়ার ছেলে এবং শায়েস্তাগঞ্জ ইসলামি একাডেমি অ্যান্ড হাই স্কুলের ২য় শ্রেণির ছাত্র।

আহত দুই শিক্ষার্থী ও অটোরিকশার চালককে প্রথমে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় দুই শিক্ষার্থীকে সিলেটে পাঠানো হয়েছে।

শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম খান জানান, সুরমা মেইল নামের লোকাল ট্রেনটি ঢাকা থেকে সিলেটে যাচ্ছিল। এ সময় শিক্ষার্থীদের বহনকারী অটোরিকশাটি বড়চর এলাকায় অনুনমোদিত একটি রেলক্রসিং পার হচ্ছিল। এতে ট্রেনের ধাক্কায় অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই এক শিশু শিক্ষার্থী মারা যায়। অপর দুই শিক্ষার্থী ও অটোরিকশার চালক গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে হতাহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে পাঠায়।

শায়েস্তাগঞ্জ ইসলামি একাডেমির প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ নূরুল হক জানান, আহত শিক্ষার্থী সামী আহমদে (৫) ও মনিরুল রেজা (৭) চিকিৎসাধীন আছেন। নিহতের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে উত্তেজিত শিক্ষার্থীরা মহাসড়কের শায়েস্তাগঞ্জের কদমতলী এলাকায় রাস্তা ব্যারিকেড দিয়ে আন্দোলন শুরু করে। খবর পেয়ে র‌্যাব ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

শেয়ার করুন