যুবনেতা জালাল স্মরণে ‘জালাল অন্তর’

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: অকাল প্রয়াত যুবনেতা মইনুদ্দিন আহমদ জালাল স্মরণে ‘জালাল অন্তর’ উদ্যানের নাম ফলক উন্মোচন করা হয়েছে। শনিবার বিকেলে দক্ষিণ সুরমার ধরাধরপুরস্থ তার নিজ বাস ভবনে পাশের খালি জায়গায় এই নাম ফলক উন্মোচন করেন সাবেক যুবনেতা, মুক্তিযোদ্ধা ও অঙ্গীকার বাংলাদেশের প্রধান পরিচালক প্রকৌশলী মুহাম্মদ হিলাল উদ্দিন।

এ সময় সেখানে পরিবেশবাদী সংগঠন ভূমিসন্তান বাংলাদেশের পক্ষ থেকে দেয়া ফলজ, বনজ ও ওষুধি গাছের ১০০ চারা রোপণ করা হয়। এছাড়া মইনুদ্দিন জালালকে নিয়ে গান পরিবেশন করেন নগরনাট সভাপতি উজ্জল চক্রবর্তী।

অনুষ্ঠানে সাবেক যুবনেতা প্রকৌশলী হিলাল উদ্দিন বলেন, ‘জালালের মত অন্তরওয়ালা মানুষ এই পৃথিবীতে সব সময় জন্ম নেয় না। জালালের অন্তর বিকশিত করার কাজে এই জায়গাকে ব্যবহার করা হোক। এর মাধ্যমেই সে আমাদের মধ্যে বেঁচে থাকবে।’

মইনুদ্দিন আহমদ জালালের স্ত্রী অধ্যাপক নাজিয়া চৌধুরী বলেন, ‘জীবদশায় তার স্বপ্ন ছিল এই জায়গায় একটি উদ্যান করার। তার স্বপ্নকে বাস্তব রূপ দিতে আজকের এই ‘ জালাল অন্তর’ এর নাম ফলক উন্মোচন করা হয়েছে। আগামি ২৪ ডিসেম্বর তার ৫৬তম জন্মবার্ষিকী এই জায়গায় উদযাপন করা হবে বলেও জানান তিনি।

‘জালাল অন্তর’ এ ৯০ ডেসিমিল জায়গা আছে। এখানে মইনুদ্দিন আহমদ জালালের যুব রাজলনীতির সংগ্রহশালা করা হবে। তার সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সৃজনশীল কাজে এই জায়গা ব্যবহার করা হবে বলে জানান মইনুদ্দিন আহমদ জালালের ভাগিনা তাজ উদ্দিন সোহাগ।

নাম ফলক উম্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দেলন (বাপা) সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম, সাবেক ছাত্রনেতা শাহরিয়ার বিপ্লব, সমাজ অনুশীলনের সদস্য সচিব সিনিয়র সাংবাদিক মুক্তাদির আহমদ মুক্তা, সাংস্কৃতিক কর্মী জাকির আহমেদ, ভূমি সন্তান বাংলাদেশের সমন্বয়ক আশরাফুল কবির, সিপিবির সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সুমন, প্রথম আলো সিলেট ব্যুরো চিফ উজ্জল মেহদী, নগরনাটের সাবেক সভাপতি অরুপ বাউল, মইনুদ্দিন জালালের বড় বোন নাজমা বেগম, ভাগিনা তাজ উদ্দিন সোহাগ, অ্যাডভাকেট সোয়েব আহমদ, গ্রীন এক্সপ্লোর সোসাইটির সভাপতি হাসনাইন আহম্মেদ প্রমুখ।

শেয়ার করুন